ন্যাশনাল ব্যাংকের অর্থ আত্মসাৎ

চীনা নাগরিকসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ হাইকোর্টের

প্রকাশ: ০৬ নভেম্বর ২০১৯      

সমকাল প্রতিবেদক

ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহাবুদ্দিন চৌধুরীর দুর্নীতির মামলা বাতিলের আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই মামলায় ব্যাংকটির দুই কোটি ৫৯ লাখ ৪০ হাজার টাকা পরিশোধ না করে আত্মসাৎ করায় চীনা নাগরিকসহ পলাতক পাঁচ আসামিকে গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন। আসামিদের পাসপোর্ট জব্দের পাশাপাশি ৬ মাসের মধ্যে এ মামলা নিষ্পত্তি করতেও বিচারিক আদালতকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

পলাতক পাঁচ আসামি হলেন- ন্যাশনাল ব্যাংকের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আবদুল ওদুদ খান, কোম্পানির চেয়ারম্যান চীনা নাগরিক ইয়াং ওয়াং চুং, এমডি খসরু আল রহমান, পরিচালক মনসুরুল হক ও মো. গোলাম মোস্তফা।

আদালতে আসামিদের পক্ষে শুনানি করেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী আবদুল মতিন খসরু। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান ও ব্যারিস্টার মো. নওশের আলী মোল্লা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না।

মামলার বিবরণে জানা যায়, দ্য সিনফা নিটাস লিমিটেড কোম্পানির নামে ভুয়া এলসি খুলে প্রতারণা ও জাল দলিল তৈরি করে ন্যাশনাল ব্যাংকের দিলকুশা শাখা থেকে আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে টাকা আত্মসাৎ করেন। এ ঘটনায় দুদকের উপপরিচালক জাহাঙ্গীর হোসেন ২০১৭ সালের ১৭ জুন ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শাহাবুদ্দিন চৌধুরীসহ ছয়জনকে আসামি করে মতিঝিল থানায় মামলা করেন।

তদন্ত শেষে গত বছরের ২৪ জুন আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। মামলাটি বর্তমানে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫-এ বিচারাধীন। এরই মধ্যে মামলাটি বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেন শাহাবুদ্দিন চৌধুরী। বুধবার তার আবেদন হাইকোর্ট খারিজ করে দেওয়ায় মামলাটি আগের মতো করেই বিচারিক আদালতে চলবে।