বাসে যৌন হয়রানির শিকার চবির আরেক ছাত্রী

প্রকাশ: ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯      

চবি সংবাদদাতা

ফাইল ছবি

ক্যাম্পাস থেকে শহরে যাওয়ার পথে বাসে এক যাত্রীর হাতে ফের যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) মার্কেটিং বিভাগের এক ছাত্রী। অভিযুক্ত যাত্রীর নাম জামাল উদ্দিন। তিনি নগরীর অক্সিজেন এলাকার বাইতুল ইমান মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করেন। 

শনিবার বিকেল ৫টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক নম্বর গেটে এ ঘটনা ঘটে। পরে বাসের অন্য শিক্ষার্থীরা তাকে পুলিশে দেন। জামাল উদ্দিনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হয়। 

হাটহাজারী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সম্রাট খীসা তাকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

ভুক্তভোগী ওই ছাত্রী বলেন, ক্যাম্পাস থেকে শহরে যাওয়ার জন্য এক নম্বর গেটে একটি বাসে উঠি। ওই ব্যক্তি আমার পেছনের সিটে বসেন। বেশ কয়েকবার আসনের নিচ দিয়ে আমার গায়ে স্পর্শ করলে আমি প্রতিবাদ করি। তখন ওই ব্যক্তি বলেন, মহাভারত অশুদ্ধ হয়ে গেছে নাকি, পরে বাসের অন্য শিক্ষার্থীরা তাকে নামিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, একজনকে আটক করে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলছেন। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযুক্তকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক এসএম মনিরুল হাসান সমকালকে বলেন, ঘটনা শোনার সঙ্গে সঙ্গে পুলিশ পাঠিয়েছিলাম। অভিযুক্ত ওই ব্যক্তিকে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসা হয়েছে। ভুক্তভোগী ছাত্রী ও প্রত্যক্ষদর্শীর সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এর আগে গত ২৭ নভেম্বর ও ৮ ডিসেম্বর চলন্ত বাসে যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী। ৮ ডিসেম্বরের ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযুক্ত ব্যক্তিকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন।