প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকির অভিযোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে করা মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত সিকদারের আদালত হাতিরঝিল থানার ওসিকে এ অভিযোগ তদন্ত করে আগামী ১৮ ফেব্রুয়ারি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

বৃহস্পতিবার আদালতে মামলাটি করেন বাংলাদেশ জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকী। বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে নথি পর্যালোচনার আদেশ পরে দেবেন বলে সেদিন জানিয়েছিলেন বিচারক।

মামলার অন্য আসামিরা হলেন- দলটির ঢাকা মহানগর উত্তর কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান রবিউল আউয়াল সোহেল, জামায়াত নেতা. আফজাল হোসেন, মুজিবুর রহমান, আবদুল করিম, হাফেজ মো. দিদারুল ইসলাম, মো. জাকির হোসেন, আব্দুল হালীম, সাদ্দাম হোসেন, আব্দুল্লাহ ও মজিবুর রহমান শেকু।

এজাহার থেকে জানা যায়, ২৭ ডিসেম্বর আসামিরা বাদীর বাসার ঠিকানা সংগ্রহ করার জন্য মিরপুর ১ নম্বরের মুক্তিপ্লাজার অফিসে যান। সেখানে বাদী না থাকায় তার অফিস স্টাফদের কাছে তার বাসার ঠিকানা চান। পরে বলে যান- খালেদা জিয়াসহ বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে যত মামলা আছে, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সব মামলা প্রত্যাহার করে নিতে হবে; অন্যথায় বোমা মেরে বাড়ি উড়িয়ে দেওয়া হবে।

অপরাধ আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন বাদী।