মাঘের শুরুতে হারিয়ে গেল শীতের অনুভূতি

প্রকাশ: ১৭ জানুয়ারি ২০২০   

 সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

মাঘ মাসের শুরুতে অনেকটাই হারিয়ে গেছে শীতের অনুভূতি। সূর্যের আলোয় শুক্রবার দিনে উত্তরাঞ্চলসহ দেশের সর্বত্রই ছিল উষ্ণ অনুভূতি। উত্তরাঞ্চলে দিনের তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যায়। অবশ্য তেঁতুলিয়ায় ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। রংপুরের দু-এক জায়গায় শনিবার বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

শুক্রবার সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় তেঁতুলিয়া ও শ্রীমঙ্গলে ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তেঁতুলিয়ায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা ছিল কপবাজারে। রাজধানীতেও ছিল উষ্ণতা। এখানে সকালে তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ১৫.১ ডিগ্রি এবং দিনের তাপমাত্রা ছিল ২৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ ছাড়া উত্তরাঞ্চলের অন্য এলাকাগুলোতে দিনের তাপমাত্রা ছিল ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, শনিবার রংপুর বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সামগ্রিকভাবে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকবে।

আবহাওয়াবিদ আবদুল হামিদ জানান, আরও দু-তিন দিন এ ধরনের উষ্ণ পরিস্থিতি বিরাজ করবে। ২০ জানুয়ারির পরে আরও বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এতে দিন ও রাতের তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে। ফলে ওই সময় মৌসুমের শেষ শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে।

পৌষের শেষ দিকে শীতের তীব্র অনুভূতি ছিল দেশজুড়ে। ঢাকায় দিনের পারদ নেমেছিল ১৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, যা ছিল সারাদেশের মধ্যে দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। টানা কয়েকদিন সূর্য ছিল মেঘের আড়ালে। ফলে দেশজুড়ে কনকনে ঠান্ডা অনুভূত হয়েছিল। মাঘ মাসের শুরু থেকে অবশ্য দিন ও রাতের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেতে থাকে। ফলে মাঘের প্রথম তিন দিন দিনের বেলায় শীতের অনুভূতি ছিল না।