জিকে শামীমের চার দেহরক্ষীর জামিন মেলেনি হাইকোর্টে

প্রকাশ: ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অস্ত্র আইন ও অর্থ পাচারের দুই মামলায় কারাগারে থাকা আলোচিত ঠিকাদার জিকে শামীমের চার দেহরক্ষীর জামিন দেননি হাইকোর্ট। তবে তাদের কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করা হয়েছে।

চার দেহরক্ষী হলো- মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, কামাল হোসেন ও সামসাদ হোসেন।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কেএম হাফিজুল আলম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল সোমবার রুল জারিসহ এই আদেশ দেন। আগামী ১০ দিনের মধ্যে সংশ্নিষ্টদের রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শামীম সরদার। অন্যদিকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান এবং রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল হেলেনা বেগম চায়না।

আদেশের পর খুরশীদ আলম সাংবাদিকদের বলেন, আসামিরা সম্মিলিত অপরাধ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে অর্থ পাচারের মামলাটি তদন্তাধীন। এখন জামিন হলে তদন্তে বিঘ্ন ঘটতে পারে। এসব যুক্তি দেওয়ার পর আদালত তাদের জামিন দেননি। তবে জামিন প্রশ্নে রুল জারি করেছেন।

গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর ঢাকার গুলশানের নিকেতনে নিজ কার্যালয় থেকে জিকে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। ওই অভিযানে প্রায় দুই কোটি টাকা, পৌনে ২০০ কোটি টাকার এফডিআর, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদ পাওয়ার কথা জানায় তারা। পরদিন তাদের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় তিনটি মামলা করে র‌্যাব। এর মধ্যে অস্ত্র ও মুদ্রা পাচার মামলায় সবাইকে আসামি করা হলেও মাদক আইনের মামলায় শুধু শামীমকে আসামি দেখানো হয়। বিচারিক আদালতে সব আসামির জামিন নাকচ হওয়ার পর গত বছরের ২৪ ডিসেম্বর হাইকোর্টে এসে চার আসামি জামিন আবেদন করেন। জিকে শামীমসহ মামলার আসামিরা হলো- দেলোয়ার হোসেন, মোরাদ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, কামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আনিছুল ইসলাম।