সিনহার নামে মামলা করে ফেঁসে গেলেন হুদা

প্রকাশ: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা (বাঁয়ে) ও সুরেন্দ্র কুমার সিনহা

ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা (বাঁয়ে) ও সুরেন্দ্র কুমার সিনহা

মিথ্যা তথ্য দিয়ে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে মামলা করার অভিযোগে বাংলাদেশ ন্যাশনালিষ্ট অ্যালায়েন্সের (বিএনএ) সভাপতি সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বুধবার দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় ঢাকা-১ এই মামলা করেন।

এজাহারে বলা হয়, ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা। দুদকের তদন্তে মামলার অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলা করার অভিযোগে নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলাটি করা হয়।

এর আগে কমিশন মঙ্গলবার মামলার অনুমোদন দেয়। ঘুষ চাওয়ার অভিযোগ ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টম্বর নাজমুল হুদা বাদী হয়ে সিনহার বিরুদ্ধে রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলা করেছিলেন।

দুদক সূত্র জানায়, নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে একটি মামলা প্রথমে খারিজ করার পর রায় পরিবর্তন করা হয়। নাজমুল হুদার করা মামলায় বলা হয়, ওই মামলা থেকে অব্যাহতি দিতে তার কাছ থেকে ২ কোটি টাকা ও অন্য একটি ব্যাংক গ্যারান্টির আড়াই কোটি টাকার অর্ধেক উৎকোচ চেয়েছিলেন এস কে সিনহা। দুদকের তদন্তে এই অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হয়। তাতে এই অভিযোগ থেকে সিনহাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। মিথ্যা তথ্য দিয়ে মামলা করার অভিযোগে নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে দুদক আইনের ২৮(গ) (২) ধারায় মামলা করা হয়।

দুদকের তদন্ত থেকে জানা যায়, নাজমুল হুদার করা ওই মামলাটি কাল্পনিক ও সাজানো ঘটনা। বাদী অসৎ উদ্দেশে আদালতের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার জন্য মিথ্যা মামলাটি করেছিলেন। নাজমুল হুদার করা ওই মামলাটি তদন্ত করেছেন দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন।