জরিমানা দিয়ে মামলা থেকে খালাস পেলেন ড. ইউনূস

প্রকাশ: ১১ মার্চ ২০২০     আপডেট: ১১ মার্চ ২০২০   

আদালত প্রতিবেদক

 ড. মুহাম্মদ ইউনূস- ফাইল ছবি

ড. মুহাম্মদ ইউনূস- ফাইল ছবি

শ্রম আইনে করা মামলা থেকে জরিমানা দিয়ে অব্যাহতি পেয়েছেন গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের চেয়ারম্যান নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ ড. মুহাম্মদ ইউনূস। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলামের আদালতে ইউনূসের পক্ষে দোষ স্বীকার করে খালাস চান তার আইনজীবীরা। 

আদালত চার বিবাদীর প্রত্যেককে সাড়ে সাত হাজার করে মোট ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে অভিযোগ নিষ্পত্তি করে তাদের খালাস দেন। তবে আগেই এ আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন নেন ড. ইউনূস।

ড. ইউনূসের আইনজীবী সিরাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমরা আদালতকে বলেছি শ্রম আইনে অপরাধ স্বীকার করলে খালাস দেওয়ার বিধান আছে। তাই আমরা দোষ স্বীকার করে নিয়েছি এবং ভবিষ্যতে তা প্রতিপালনের অঙ্গীকার করেছি। তাই অভিযোগ থেকে বিবাদীদের অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

শ্রম আইন অমান্য করায় গত ৫ জানুয়ারি ঢাকার তৃতীয় শ্রম আদালতের বিচারক রহিবুল ইসলামের আদালতে এ মামলা করেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের শ্রম পরিদর্শক (সাধারণ) তরিকুল ইসলাম। 

মামলায় ড. ইউনূস ছাড়াও গ্রামীণ কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজনীন সুলতানা, পরিচালক আ. হাই খান ও উপ-মহাব্যবস্থাপক (জিএম) গৌরি শংকরকে বিবাদী করা হয়। গত ১৩ জানুয়ারি এ মামলায় বিবাদীদের প্রতি সমন জারি করেন আদালত।