করোনাভাইরাস পরীক্ষায় বাংলাদশেকে দেয়া সাড়ে ৪০ হাজার কিটসহ সব চিকিৎসা সরঞ্জাম মানসম্মত। সেগুলো মানসম্পন্ন সরবরাহকারী প্রতষ্ঠিান থেকে ক্রয় করা হয়েছে। শনবিার এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে চীনা দূতাবাস। খবর ইউএনবির

সম্প্রতি স্পেন সরকার চীন থেকে করোনাভাইরাস পরীক্ষার যে কিট কিনেছিল তা সঠিকভাবে কাজ করেনি বলে খবর প্রকাশিত হয়। এতে বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। সে পরিপ্রেক্ষিতে চীনা দূতাবাসের পক্ষ থেকে এ বিবৃতি দেওয়া হলো।

বিবৃতিতে বলা হয়, কিট সংরক্ষণে নির্দিষ্ট শর্ত মানতে হয়। নির্মাতাদের নির্দেশাবলী ও ব্যবহারবিধি কঠোরভাবে অনুসরণ করে পেশাদারদের মাধ্যমেই কেবল পরীক্ষা করা উচিত। অপারেটরদের টেস্টিং কিট ব্যবহারে ভুল প্রয়োগ বা অপব্যবহার এড়িয়ে চলার চেষ্টা করা উচিত।

দূতাবাস জানায়, করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ মোকাবিলায় চীন সর্বদা বাংলাদেশের জনগণের পাশে থাকবে। সামর্থ্যের মধ্যে প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান অব্যাহত রাখবে। 

কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের শনাক্তকরণে সক্ষমতা বাড়ানোর জন্যই চীন বাংলাদেশকে কিট সরবরাহ করেছে।