বিশ্বে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাসহ বিভিন্ন দেশে উদ্বাস্তুরা বড় ধরনের স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছেন বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। রোহিঙ্গাসহ উদ্বাস্তু সব মানুষকে রক্ষায় বড় ধরনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি। এ জন্য ২৬ মার্চ প্রায় ২৬ কোটি ডলারের তহবিল সংগ্রহের আহ্বান জানানো হয়েছে। 

এ ছাড়া শরণার্থী শিবিরগুলোর জন্যও নতুন পদক্ষেপ নিচ্ছে আন্তর্জাতিক সংস্থাটি। মঙ্গলবার ইউএনএইচসিআরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এতে আরও জানানো হয়, এখন পর্যন্ত আশ্রয় শিবিরগুলোতে করোনা সংক্রমণ অত্যন্ত কম। তবে তারা যেসব এলাকায় বাস করে, সেখানে স্বাস্থ্য, পানি ও পয়ঃনিস্কাশন ব্যবস্থা খুবই দুর্বল। এতে বলা হয়, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরতদের প্রশিক্ষণ দেওয়া শুরু হয়েছে। জরুরি প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য দুই হাজারের বেশি রোহিঙ্গা স্বেচ্ছাসেবক রোহিঙ্গা নেতাদের সঙ্গে কাজ করছেন। এই পদক্ষেপকে জোরদার করতে পোস্টার ও লিফলেট বিলি করা হচ্ছে। বাড়তি ব্যবস্থা হিসেবে সবার জন্য সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ ছাড়া আশপাশের এলাকায় কোয়ারেন্টাইন ও চিকিৎসা ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

সংস্থাটি গ্রিস, জর্ডান, কঙ্গো, সুদান, ইথিওপিয়াসহ অন্যান্য দেশে আশ্রিত উদ্বাস্তুদের জন্যও ব্যবস্থা নিচ্ছে।

ইউএনএইচসিআরের প্রধান ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি বলেন, কভিড-১৯ তাদের কার্যক্রম পরিচালনায় বড় ধরনের প্রভাব ফেলেছে এবং কার্যক্রম নতুন করে সাজাতে হচ্ছে।