৭ হাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে আর্থিক সহায়তা দেবে ‘মিশন সেভ বাংলাদেশ’

প্রকাশ: ০৫ এপ্রিল ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

করোনাভাইরাস সংক্রমণের বিরূপ প্রভাব পড়েছে সমাজের সব শ্রেণির মানুষের জীবনে। নিম্ন আয়ের মানুষ থেকে শুরু করে ব্যবসায়ী সবাই এক মহাসংকট পার করছেন। বিশেষ করে যারা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী তাদের অনেকের মূলধন শেষ পর্যায়ে। ফলে এসব উদ্যোক্তারা এক উদ্বেগের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। এবার এমন সব  ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের আর্থিক ও অন্যান্য সব ধরনের সহযোগিতা করার উদ্যোগ নিয়েছে ‘মিশন সেভ বাংলাদেশ’।

‘মিশন সেভ বাংলাদেশ’ এর অন্যতম উদ্যোক্তা আদনান ইমতিয়াজ হালিম বলেন, দেশে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর সংখ্যা এক কোটির বেশি। এ খাতে কাজ করে দুই কোটির বেশি শ্রমজীবী। যদি করোনা ভাইরাসের জন্য আমাদের সবকিছু জুন পর্যন্ত স্থবির হয়ে যায় এবং প্রতি মাসে যদি আনুমানিক ৫০ হাজার টাকা করে ব্যবসায়িক ক্ষতি হয় তাহলে মার্চ থেকে জুন মাস পর্যন্ত মোট ক্ষতি হবে দুই লাখ কোটি টাকা।  শ্রমজীবী মানুষের বেশিরভাগই দৈনিক মজুরি অথবা চুক্তিতে কাজ করে। তার মানে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ব্যবসার ক্ষতি হলে ওদের সাথে কাজ করা শ্রমজীবীদের আয় বন্ধ হয়ে যাবে। অর্ধেক মানুষেরও যদি আয় বন্ধ হয়ে যায় তাহলেও এক কোটির উপর পরিবার বিপদে পড়বে। 

তিনি বলেন, ‘মিশন সেভ বাংলাদেশ’ এর পক্ষ থেকে আমরা সাত হাজার ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর পাশে দাঁড়াব। প্রতিটি থানা থেকে আনুমানিক ১০-১৫ জন করে পাঁচ হাজার এবং ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে আরো দুই হাজার উদ্যোক্তা বাছাই করব আমরা। এসব ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরকে আর্থিক এবং অন্যান্য যত ধরনের সহযোগিতা লাগবে তা দিয়ে সাহায্য করা হবে। 

আদনান ইমতিয়াজ হালিম আরও বলেন, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদেরকে ১০ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে তাদের জন্য স্বল্প সুদে ঋণের ব্যবস্থা করা, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনুপ্রাণিত করা হবে তাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য, পলিসি মেকারদের কাছে তথ্যগুলোকে আরো গুছিয়ে তুলে ধরা হবে এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের জন্য কি পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে সেই প্রস্তাব দেয়া হবে। ব্যবসার ধরন বুঝে সময় উপযোগী বিকল্প অথবা উদ্ভাবনীয় উপায় খুঁজে বের করা হবে, সারাদেশের স্বেচ্ছাসেবকদের একত্রিত করা হবে যারা ব্যবসায়ীদের পাশে থেকে অনুপ্রেরণা এবং বুদ্ধি পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করবে।

সেবা এক্সওয়াইজেড, সমকাল ও ডেইলি স্টারের এই উদ্যোগে অর্থ ও অন্যান্য সহযোগিতা নিয়ে যুক্ত হয়েছে আইপিডিসি ফাইন্যান্স, পিএফডিএ, স্বপ্ন, এসএসএল কমার্স, মিরপুর ডিওএইচএস সোসাইটি, ডানো, গুলশান সোসাইটি, পাঠাও, ডাবর বাংলাদেশ, তরুণ ডিজিটাল, ইউনিমার্ট, জেসিআই ঢাকা নর্থ, কর্ম, এডিএ, নিজের বলার মতো একটা গল্প, রবি টেন মিনিট স্কুল, সেফ হ্যান্ডস, ডেভোটেক, ডাক্তার ভাই, উইন্ডমিল, অমিকন গ্রুপ, জাস্টস্টোরিজ, মেমোরিলেন, এডুহাইভ, লেকচার পাবলিকেশনস লিমিটেড, ই-কুরিয়ার, মহাখালী ডিওএইচএস সোসাইটি, রোয়ার বাংলা, বনানী সোসাইটি, চ্যারিটি রাইট, ভ্রুম, স্পাইক স্টোরি, পেপারফ্লাই, বঙ্গ, মাস্টহেড পিআর, সিএনআই, অ্যাঞ্জেল শেফ, স্মার্টিফায়ার, জেসিআই ঢাকা সাউথ, শাশা ডেনিমস, অলিম্পিক, চল ঘুরি, আডন কমিউনিকেশন, পপ অব কালার, আর্থমুভিং সলিউশন, মাইন্ডম্যাপার, ট্রাক কোথায়, মেন্টরস, অসীম এন্টারপ্রাইজ, হাই ভোল্টেজ লিমিটেড, সি থ্রি সিক্সটি, গ্রো অ্যান্ড এক্সেল, হরলিক্স, সামিট কমিউনিকেশন লিমিটেড, সেইলর, টেকনো ড্রাগস লিমিটেড, নন্দ-দুলাল মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ফাউন্ডেশন, জেসিআই চিটাগং কসমোপলিটান, ওয়ান পার্সেন্ট ফাউন্ডেশন, অ্যারোলিংক, ওয়ান্ডার ওমেন, রেনাটা লিমিটেড, এস ম্যানেজার, এস বিজনেস, মমতাজ হারবাল, এপিলগ, মাসতুল ফাউন্ডেশন, বেটার স্টোরিজ লিমিটেড, আদর্শ বাজার, লাইটক্যাসেল পার্টনারস ও অ্যাকুয়া পেইন্টস।

ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সামর্থ্য অনুযায়ী 'মিশন সেভ বাংলাদেশ' উদ্যোগে আর্থিক সহায়তা দিয়ে যুক্ত হতে পারেন। বিস্তারিত জানতে অথবা অনুদান দিতে ভিজিট করুন-https://samakal.com/MissionSaveBangladesh

..........................................

ভেন্টিলেটর তৈরিতে পাশে থাকবে 'মিশন সেভ বাংলাদেশ'

আরও আড়াইশ' পরিবার পেল ১০ দিনের খাবার

ধন্যবাদ সাকিব আল হাসান

আরও ১১০ পরিবার পেল ১০ দিনের খাবার

তারা পেলেন ১০ দিনের খাবার

সুবিধাবঞ্চিত মানুষের পাশে 'মিশন সেভ বাংলাদেশ'

'মিশন সেভ বাংলাদেশ'