প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, করোনাভাইরাসের জন্য সারা বিশ্বব্যাপী যে খাদ্য মন্দা সৃষ্টি হবে তাতে আগামীতে বিশ্বব্যাপী দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে সোমবার সকালে ঢাকা ও ময়মনসিংহ বিভাগের অন্তর্ভুক্ত জেলাসমূহের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে আটটি জেলার সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন। জেলাগুলো হলো- কিশোরগঞ্জ, টাঙ্গাইল, মানিকগঞ্জ, গাজীপুর, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ। খবর ইউএনবির।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘কিন্তু বাংলাদেশে আমরা যদি খাদ্য উৎপাদন করে খাদ্য মজুত রাখতে পারি তাহলে আমরা দুর্ভিক্ষে পড়ব না। বরং আমরা অনেককেই সাহায্য করতে পারব। সেই ব্যবস্থা এখন থেকে নিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আমাদের মাটি উর্বর, মানুষ অনেক কর্মঠ, বাংলাদেশ খাদ্যে এখন উদ্বৃত্ত। কারও এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। সেদিকে দৃষ্টি দেবেন। সেটাই আমি চাই। যে যা পারেন কিছু চাষ করেন। ধান কাটার পরে নতুন আরেকটা ফসল কি করা যায় আমাদের সেটা করা উচিত।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রায় ৯৫ হাজার কোটি টাকার উপরে প্রণোদনা ঘোষণা করেছি।  আমরা এইজন্য করেছি আমাদের অর্থনীতি সচল রাখার জন্য।’

এর আগে গত ১৬ এপ্রিল ঢাকা বিভাগের ৯টি জেলা ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, মুন্সিগঞ্জ, নরসিংদী, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর ও গোপালগঞ্জের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেন প্রধানমন্ত্রী। তারও আগে চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল ও খুলনা বিভাগের কর্মকর্তাদের সাথে ভিডিও কনফারেন্স করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাসে দেশে নতুন করে সাতজনের মৃত্যু হওয়ায় রবিবার এ সংখ্যা ৯১ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া নতুন করে ৩১২ জন শনাক্ত হওয়ায় এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪৫৬ জনে।