জ্বর, সর্দি, কাশি, গলাব্যথা ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে নতুন করে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে পঞ্চগড়ে এক, কুড়িগ্রামে এক, নাটোরে এক, শরীয়তপুরে এক, ঝালকাঠিতে এক ও লক্ষ্মীপুরে একজন মারা গেছেন। এ নিয়ে করোনা উপসর্গে সারাদেশে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৯৯-এ। জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত :

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ময়দানদীঘি ইউনিয়নের গাইঘাটা গ্রামে জ্বর, সর্দি ও গলাব্যথা নিয়ে হাবিবুর রহমান রাজীব (১৬) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। করোনা পরীক্ষার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। সোমবার বিকেলে তাকে বিশেষ ব্যবস্থায় দাফনের কথাও জানিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয়রা জানান, রাজীব এবার এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছিল। কয়েকদিন ধরে সে জ্বর, সর্দি ও গলাব্যথায় ভুগছিল। রোববার বিকেলে তাকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাতে তার মৃত্যু হয়। তবে পরিবারের দাবি, জন্ডিসে তার মৃত্যু হয়েছে।

কুড়িগ্রামের উলিপুরে শহিদুর রহমান (৪৫) নামে এক ব্যক্তি মারা গেছেন। রোববার রাতে নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। জানা গেছে, তিনি টাঙ্গাইলের এক প্রবাসীর বাড়িতে কাজ করতেন। সম্প্রতি ওই প্রবাসী দেশে আসার পর তাকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এক সপ্তাহ আগে টাঙ্গাইল থেকে বাড়িতে আসেন শহিদুর রহমান। এরপর থেকে তিনি জ্বর, সর্দি, কাশি ও গলাব্যথায় ভুগছিলেন। তার এবং তার স্ত্রী ও ১২ বছরের মেয়ের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে ঢাকাফেরত এক কিশোর মারা গেছে। তার নাম রাজীব। সে ঢাকায় একটি খাবারের হোটেলে কাজ করত। সম্প্রতি সে বাড়ি আসে। দু'দিন ধরে তার জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ছিল। সঙ্গে ডায়রিয়া দেখা দিলে রোববার রাতে নিজ বাড়িতে মারা যায় সে। স্বাস্থ্য বিভাগ রাজীবের মৃতদেহ থেকে এবং তার পরিবারের ১০ সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করেছে।

নাটোরের বাগাতিপাড়ায় সুকুমার দাস (৩৫) নামে এক ভ্যানচালক মারা গেছেন। রোববার রাতে উপজেলার নওশেরা গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। তিনি কয়েকদিন ধরে জ্বর, সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। খবর পেয়ে পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের টিম গিয়ে নমুনা সংগ্রহ করে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি থাকা মজিবুর রহমান মোড়ল (৬০) নামে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তার বাড়ি সদর উপজেলার কাজী কান্দী গ্রামে। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে রোববার সকালে হাসপাতালে যান মজিবুর। পরে তাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল সোমবার সকালে তিনি মারা যান।