পিরোজপুরে ইউএনও অফিসে ২ পদের মৌখিক পরীক্ষা হাইকোর্টে স্থাগিত

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০২০     আপডেট: ০৭ জুলাই ২০২০   

সমকাল প্রতিবেদক

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে অফিস সহায়ক পদে লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই দুই প্রার্থীকে সরাসরি মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ দেখানো নোটিশের কার্যক্রম স্থগিত করেছে হাইকোর্ট।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিমের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই আদেশ দেন। 

আদালতে রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. জহুরুল ইসলাম মুকুল। তিনি জানান, গত ১৬ মার্চ পিরোজপুরের ইন্দুরকানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দুজন অফিস সহায়ক নিয়োগের বিষয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়। পরে গত ৩০ মার্চের মধ্যে স্থানীয় ২৬০ জন প্রার্থী নিয়োগ পরীক্ষার জন্য আবেদন জানান। পরীক্ষার উদ্দেশে তারা প্রত্যেকে ৩০০ টাকা ব্যাংক ড্রাফটও করেন। তবে করোনা পরিস্থিতিতে ওই নিয়োগ প্রক্রিয়া কিছুদিনের জন্য থেমে যায়।

তিনি বলেন, এর মধ্যেই হঠাৎ করে কোনো লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই বেআইনীভাবে প্রার্থীদের মধ্য থেকে দুজনকে সরাসরি মৌখিক পরীক্ষার জন্য নাম চূড়ান্ত করে একটি নোটিশ জারি করে। তাই আগ্রহী প্রার্থীদের কোনো পরীক্ষার সুযোগ না দিয়ে পছন্দের দুই প্রার্থীকে মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য জারিকৃত ইউএনও'র নোটিশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিটটি দায়ের করা হয়। ওই রিটের শুনানি নিয়ে আদালত আদেশ দিলেন। রিটে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় সচিব ও বরিশালের জেলা প্রশাসকসহ চারজনকে বিবাদী করা হয়।