মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদে একে অপরের ওপর দোষ চাপালেন আরিফ-সাবরিনা

প্রকাশ: ১৬ জুলাই ২০২০     আপডেট: ১৬ জুলাই ২০২০   

বিশেষ প্রতিনিধি

ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও তার স্বামী আরিফুল হক চৌধুরী। ফেসবুক থেকে নেওয়া ছবি

ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও তার স্বামী আরিফুল হক চৌধুরী। ফেসবুক থেকে নেওয়া ছবি

করোনা সনদ জালিয়াতিতে গ্রেপ্তার ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও তার স্বামী আরিফুল হক চৌধুরীকে মুখোমুখি বসিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাদের রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে একসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ করেন কর্মকর্তারা।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, মুখোমুখি জিজ্ঞাসাবাদে একে অপরের ওপর দোষ চাপিয়েছেন আরিফ-সাবরিনা।

ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের তেজগাঁও জোনের ডিসি গোলাম মোস্তফা রাসেল সমকালকে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদে আরিফ জেকেজির কর্মীদের ওপর দোষ চাপান। আর ডা. সাবরিনা দাবি করেন, তিনি শুরুতে জালিয়াতির কথা জানতেন না। যখন বুঝতে পারেন, তখন সেখান থেকে সরে আসেন।

ডা. সাবরিনা আরিফ চৌধুরী ও তার স্বামী আরিফুল হক চৌধুরীকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে বলে জানান তেজগাঁও জোনের এই ডিসি। 

এর আগে বুধবার রাতে ডিবি কার্যালয়ে তাদের প্রথমবারের মতো একসঙ্গে মুখোমুখি করে বেশ কিছুক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

করোনা পরীক্ষার সনদ জালিয়াতির অভিযোগে গত ২৩ জুন জেকেজির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফুল হক চৌধুরীসহ ছয় কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মামলা হওয়ার পর ২৪ জুন নমুনা পরীক্ষার জন্য জেকেজির অনুমতি বাতিল করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। পুলিশি তদন্তে প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান হিসেবে করোনা সনদ জালিয়াতিতে ডা. সাবরিনার নাম আসে। গত ১২ জুলাই তাকে গ্রেপ্তার করে ১৩ জুলাই তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়। শুরুর দিকে ওই মামলাটি তেজগাঁও থানা পুলিশ তদন্ত করলেও তা এখন ডিবি তদন্ত করছে।