ঋণ জালিয়াতির ২৬ মামলার 'ভুল আসামি' হয়ে কারাভোগ করা টাঙ্গাইলের জাহালমকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার বিষয়ে হাইকোর্টের স্বঃপ্রণোদিত রুলের শুনানি নিয়ে রায় ঘোষণা পিছিয়েছে। বুধবার এ রায় ঘোষণা করা হবে।

বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কেএম কামরুল কাদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এই দিন ধার্য করেন। এসময় আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মোহাম্মদ খুরশীদ আলম খান উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত ২২ সেপ্টেম্বর হাইকোর্টের এই বেঞ্চই এ মামলাটির রায়ের জন্য মঙ্গলবার দিন ধার্য করেছিলেন।

'ভুল আসামি' হয়ে ২৬ মামলায় তিন বছর কারাগারে থাকার পর হাইকোর্টের আদেশে গত বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি মুক্তি মান জাহালম। আবু সালেক নামে একজনের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ২৬টি মামলা রয়েছে। কিন্তু আবু সালেকের বদলে জেল খাটেন টাঙ্গাইলের পাটকল শ্রমিক জাহালম। পরে এ বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে হাইকোর্ট তাকে মুক্ত করার নির্দেশ দেন। এর ধারাবাহিকতায় গত বছরের ১৭ এপ্রিল জাহালমকাণ্ডে কে বা কারা দায়ী তা চিহ্নিত করার জন্য দুদকের প্রতিবেদন চান হাইকোর্ট। পাশাপাশি জাহালম প্রশ্নে ব্যাংক ঋণ জালিয়াতির মামলার এফআইআর, চার্জশিট, সম্পূরক চার্জশিট এবং সকল ব্যাংকের নথিপত্র দাখিল করতে দুদককে নির্দেশ দেওয়া হয়। এরপর আপিল বিভাগের নির্দেশনা অনুসারে এ মামলায় জারি করা রুলের শুনানি শেষে রায়ের জন্য দিন ঘোষণা করা হয়।