জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন মামলায় সাভারের রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার জামিন বাতিল প্রশ্নে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। রুলে তাকে বিচারিক আদালতের দেওয়া জামিন কেন বাতিল করা হবে না- জানতে চাওয়া হয়েছে। রুল নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত তার জামিনও স্থগিত রাখা হয়েছে।

বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেল সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা আবেদনের শুনানি নিয়ে  সোমবার এ আদেশ দেন।

আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী খুরশীদ আলম খান এবং রাষ্ট্রপক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। সোহেল রানার পক্ষে আইনজীবী ছিলেন আলমগীর হোসেন।

সাভারে ধসে পড়া রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার বিরুদ্ধে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগে সাভার মডেল থানায় মামলা করে দুদক। মামলায় সোহেল রানার বিরুদ্ধে দুই কোটি ৫৪ লাখ টাকার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের অভিযোগ আনা হয়। ২০১৫ সালের এপ্রিলে সোহেল রানার সম্পদের হিসাব চেয়ে কারাগারে নোটিশ পাঠায় দুদক। তখন কারাগার থেকে সম্পদের কোনো হিসাব দিতে পারবেন না বলে জানিয়ে দেন সোহেল রানা। এর পর সম্পদের হিসাবে অসঙ্গতি পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

গত ১৭ মে এ মামলায় সোহেল রানাকে জামিন দেন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত। পরে ওই জামিন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করে দুদক। ২০১৩ সালের এপ্রিলে রানা প্লাজা ধসে ১১ শতাধিক শ্রমিক নিহত এবং আড়াই হাজার লোক আহত হন।

বিষয় : হাইকোর্ট রানা প্লাজা

মন্তব্য করুন