করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে শিক্ষা কার্যক্রম স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষক সমিতির নির্বাচন না করার আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন ৬৩ শিক্ষক।  

শুক্রবার এই বিবৃতি দেওয়া হয়। তবে বিবৃতিতে নাম উল্লেখ থাকা বেশ কয়েকজন শিক্ষক এ বিষয়ে জানেন না বলে জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির ফেডারেশন করোনা মহামারিতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে শিক্ষক সমিতির নির্বাচন না করার আহ্বান জানিয়েছে। তাদের এই আহ্বানকে যুক্তিসংগত অত্যন্ত সময়োপযোগী উল্লেখ করে এতে সমর্থন দেওয়া হয়। এতে আরও বলা হয়েছে, সম্প্রতি দেশব্যাপী করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্যুহার বেড়েছে। এই পরিস্থিতিতে নির্বাচন ঝুঁকিপূর্ণ কিনা, বিবেচনা করার আহ্বান জানানো হয়।

খুবি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. আশীষ কুমার দাস বলেন, দেশে অন্যান্য নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় আমরা শিক্ষক সমিতির নির্বাচনের পক্ষে। এ ব্যাপারে যে কোনো শিক্ষক চাইলেই আপিল করতে পারেন। তবে বিবৃতিতে কিছু শিক্ষকের নাম রয়েছে, যারা শিক্ষা ছুটিতে দেশের বাইরে আছেন। একই সঙ্গে স্বাক্ষর ছাড়া বিবৃতিতে সবার মতামত নেওয়ার ক্ষেত্রে আরও বেশি দায়িত্বশীল হওয়া জরুরি ছিল বলে মনে করি।

বিবৃতিতে নাম উল্লেখ থাকা অ্যাগ্রোটেকনোলজি ডিসিপ্লিনের অধ্যাপক আব্দুল মান্নান ও ফার্মেসি ডিসিপ্লিনের সহকারী অধ্যাপক প্রশান্ত পালসহ কয়েকজন শিক্ষক এ ব্যাপারে কিছু জানতেন না বলে দাবি করেন। আর বিবৃতির বিষয়টি নিশ্চিত করে এ ব্যাপারে ফরেস্ট্রি অ্যান্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের মোহাম্মদ রকিবুল হাসান সিদ্দিক জানান, করোনার কারণে বিবৃতিতে সবার স্বাক্ষর নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে সবার সঙ্গে মোবাইল ফোন ও খুদেবার্তার মাধ্যমে যোগাযোগ করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে দু-একজন শিক্ষকের ক্ষেত্রে মিসকমিউনিকেশন হতে পারে।