করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ ঠেকাতে সৌদি আরব, ওমানসহ কয়েকটি দেশ বিমান চলাচল বন্ধ করলেও এতে বাংলাদেশি বিদেশগামী কর্মীদের দুশ্চিন্তার কারণ নেই বলে আশ্বস্ত করেছেন প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ। ভিসা, টিকিট হাতে পেয়েও কয়েক হাজার কর্মীর বিদেশযাত্রা আটকে গেলেও মন্ত্রী বলেছেন, বিমান যোগাযোগ চালুর পর আটকেপড়ারা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে যেতে পারবেন।

আন্তর্জাতিক অভিবাসী দিবস উপলক্ষে বুধবার প্রবাসী কল্যাণ ভবনে রাষ্ট্রায়ত্ত রিক্রুটিং এজেন্সি বাংলাদেশ ওভারসিজ এমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেড (বোয়েসেল) আয়োজিত অংশীজন সভায় এসব কথা বলেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, ফ্লাইট বন্ধে উদ্বেগের কিছু নেই। দুনিয়া যেভাবে চলবে, সেভাবে চলতে হবে।

করোনাকালে বিদেশে চাকরি ও কাজ হারিয়ে প্রায় সাড়ে তিন লাখ কর্মী দেশে ফেরত এসেছেন। মন্ত্রী বলেন, দক্ষ কর্মী পাঠানোর সুযোগ রয়েছে। ফেরত আসাদের অর্ধেকও যদিও দক্ষ কর্মী পাঠানো যায়, তাহলে রেমিট্যান্স প্রবাহে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে না।

ইমরান আহমদ বলেন, বিদেশে কর্মরত নারীদের নিরাপত্তার দায়িত্ব তাদের নিজের সবচেয়ে বেশি। শিক্ষার অভাবে খুব সহজেই নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করতে পারে সবাই। কমপক্ষে এইচএসসি পাস করতে পারলে সেই নারী নিজের দেখাশোনা নিজে করতে পারবে, কেউ তাকে বোকা বানাতে পারবে না।

সভায় বেসরকারি রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর সংগঠন বায়রার সভাপতি বেনজির আহমেদ এমপি বলেন, বিদেশে কর্মী পাঠাতে নানা অভিযোগ আসে। সব অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যা নয়, অধিকাংশই সত্য। এসব বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে। বায়রা ও বোয়েসেল একসঙ্গে কাজ করলে ভালো কাজের প্রতিযোগিতা হবে।