হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা আল্লামা আহমদ শফীর মৃত্যুর ঘটনায় সংগঠনটির ৩৬ নেতার বিরুদ্ধে করা মামলায় সরকারের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। বৃহস্পতিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক পার্সপোট কার্যালয়ে ই-পাসপোর্ট কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'যে কেউ যদি সংক্ষুব্ধ হন বা মনে করেন অধিকার ক্ষুণ্ণ হয়েছে তাহলে মামলা করতে পারেন। বিচার বিভাগ স্বাধীন বলে সরকার বিশ্বাস করে। বিচার বিভাগ নিজেদের মতো করে কার্যক্রম চালিয়ে নিচ্ছে।'

তিনি আরও বলেন, '৬ জেলার ই-পাসপোর্ট সেবা চালুর মাধ্যমে সারাদেশ এ কার্যক্রমের আওতা চলে এসেছে। মুজিব জন্মশতবার্ষিকীকে ঘিরে প্রধানমন্ত্রীর যে প্রতিশ্রুতি ছিল সেটি বাস্তবায়ন করেছে সরকার। দক্ষিণ এশিয়া সর্বপ্রথম ও বিশ্বের ১১৯তম দেশ হিসেবে ই-পাসপোর্ট সেবার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ অনন্য এক পর্যায়ে পৌঁছে গেছে। ১ লাখ গ্রাহক ই-পাসপোর্ট সেবা গ্রহণ করেছেন এবং আরও ২ লাখ গ্রাহককে এ সেবা দেওয়ার প্রস্তুতি চলছে।'

অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ির সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো. শহিদুজ্জামান, ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আইয়ুব চৌধুরী বক্তব্য রাখেন।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, '২০০৮ সালে জননেত্রী শেখ হাসিনা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশ হিসেবে ই-পাসপোট কার্যক্রম চালু করেন। ই-পাসপোট সারা বিশ্বে বিশ্বাসযোগ্য, নিরাপদ। ই-পাসপোট ইস্যু করা হবে ১০ বছরের জন্য।' ই-পাসপোট পেতে যাতে হয়রানির শিকার হতে না হয়, সেদিকে নজর রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, 'ই-পাসপোটের জন্য ঘরে বসে আবেদন করা যাবে। পরবর্তীতে ফিঙ্গার প্রিন্ট, আই প্রিন্ট অফিসে গিয়ে আসতে হবে। ই-পাসপোর্টের পাশাপাশি এমআরপি পাসপোর্টও ব্যবহৃত হবে।'

পার্বত্য শান্তিচুক্তি বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'চুক্তির কিছু কিছু বিষয় অসম্পূর্ণ রয়েছে। এ ব্যাপারে কাজ চলছে। আমরা আর এই এলাকায় রক্তপাত চাই না। দেশ অনেক এগিয়েছে, নতুন নতুন সম্ভাবনার সৃষ্টি হচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের এই বাংলাদেশে কোনো অংশ অন্ধকারে থাকবে প্রধানমন্ত্রী তা কখনো চিন্তা করেন না।'

এ সময় খাগড়াছড়ি ছাড়াও অনলাইনে রাঙ্গামাটি, বান্দরবান, কক্সবাজার, নারায়ণগঞ্জ ও চাঁদপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের ই-পাসপোর্ট সেবা কার্যক্রম উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিকেলে খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসের সভাপতিত্বে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত বিশেষ সভায় যোগ দেন তিনি।