বাংলাদেশে গত ১৪ মাসে পানিতে ডুবে ৮৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৭৩৫ জনই শিশু, যা মোট মৃত্যুর ৮৩ শতাংশ। গ্লোবাল হেলথ অ্যাডভোকেসি ইনকিউবেটরের (জিএইচএআই) সহযোগিতায় গণমাধ্যম উন্নয়ন ও যোগাযোগ বিষয়ক প্রতিষ্ঠান 'সমষ্টি' গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ থেকে এ তথ্য জানিয়েছে। 

বৃহস্পতিবার পানিতে ডুবে মৃত্যু রোধে করণীয় শীর্ষক সাংবাদিকদের এক ফলোআপ কর্মশালায় ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ১৪ মাসের বিশ্লেষণ তুলে ধরা হয়। ভার্চুয়াল ওই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সমষ্টির নির্বাহী পরিচালক ও চ্যানেল আইয়ের সিনিয়র বার্তা সম্পাদক মীর মাসরুর জামান, পরিচালক (গবেষণা ও যোগাযোগ) রেজাউল হক, গ্লোবাল হেলথ্‌ অ্যাডভোকেসি ইনকিউবেটরের কান্ট্রি লিড রুহুল কুদ্দুস, কমিউনিকেশন ম্যানেজার সারওয়ার ই আলম।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, মৃতদের মধ্যে চার বছর বা তার কম বয়সী ৩১০ জন, ৫ থেকে ৯ বছর বয়সী ২৮৪ জন, ৯ থেকে ১৪ বছর বয়সী ১১০ জন এবং ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সী ৩১ জন। ১৫০ জনের বয়স ১৮ বছরের বেশি। পানিতে ডুবে ঢাকা বিভাগে ১৯৩, চট্টড়গ্রামে ১৭২, রংপুরে ১৪১, রাজশাহীতে ১১০, ময়মনসিংহে ১০০, বরিশালে ৬৬, খুলনা বিভাগে ৬১ এবং সিলেট বিভাগে ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।