সড়কে দায়িত্ব পালন করছেন ট্রাফিক পুলিশের এক সদস্য। একটি রিকশা এসে থামে তার কাছে। পুলিশ সদস্য রিকশাচালককে সালাম দেন। দু’জনের কথা হয়। এরপর পকেট থেকে টাকা বের করে রিকশাচালককে দেন তিনি। সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায় এ দৃশ্য।

পরে জানা যায়, ওই পুলিশ সদস্যের নাম সোহাগ হোসেন। তিনি নরসিংদী পুলিশ লাইন্সে কর্মরত। অর্থসংকটে থাকা রিকশাচালককে তিনি খাওয়ার জন্য টাকা দিয়েছিলেন।

সংশ্নিষ্টরা জানান, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল নরসিংদী সদরের ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক সংলগ্ন জেলখানা মোড় এলাকা। এর পাশের একটি হার্ডওয়্যারের দোকানের সিসিটিভি ক্যামেরায় দৃশ্যটি ধরা পড়ে। ঘটনাটি সরাসরি দেখেন স্বপন শেখ নামে এক শিক্ষার্থী। তিনি একজন পুলিশ সদস্যকে টাকা দিতে দেখে কৌতূহলী হন। পরে তিনি বিস্তারিত জেনে নেন। বিষয়টি ভালো লাগায় সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে পোস্ট করেন ফেসবুকে।

কনস্টেবল সোহাগ হোসেন জানান, পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় বাবার বয়সী ওই রিকশাচালক এসে দাঁড়ান। তাকে সালাম দেন তিনি। তখন রিকশাচালক বলেন, একজন তার রিকশা ভাড়া নিয়ে এক ঘণ্টা দাঁড়িয়ে রেখে কোনো টাকা না দিয়েই চলে গেছেন। তিনি ক্ষুধার্ত। কিন্তু তার কাছে খাওয়ার মতো টাকা নেই। এজন্য তিনি ২০ টাকা চান। মাত্র ২০ টাকা দিয়ে কী খাবেন? প্রশ্ন করেন সোহাগ। জবাবে রিকশাচালক জানান, তিনি পাউরুটি ও কলা খাবেন। ওই টাকাতেই হবে। এরপর সোহাগ তাকে টাকা দেন ও খাবারের দোকান দেখিয়ে দেন।

সালাম দেওয়ার প্রসঙ্গে সোহাগ বলেন, এটা আমার পারিবারিক শিক্ষা। কাউকে সম্মান করলে নিজেও সম্মান পাওয়া যায়। উনি আমার বাবার বয়সী। তাই তাকে সালাম দিয়েছি।

এদিকে ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটি দেখে সবাই কনস্টেবল সোহাগের প্রশংসা করছেন। তারা বলছেন, এমন মানবিক পুলিশকেই মানুষ দেখতে চায়।

২০১১ সালে পুলিশে যোগ দেওয়া সোহাগের বাড়ি নারায়ণগঞ্জে।