আর্থিক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি মামলার আসামি পলাতক পি কে হালদারসহ ৩৭ জনের বিরুদ্ধে পাঁচটি মামলা করতে যাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। 

দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালক গুলশান আনোয়ার প্রধানের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টিমের সদস্যরা বাদী হয়ে আগামী রোববার কমিশনের ঢাকা-১ কার্যালয়ে মামলাগুলো করবেন।

সূত্র জানায়, জালজালিয়াতি করে কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নাম উল্লেখ করে ঋণের নামে ৪৩৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে আসামিদের বিরুদ্ধে। আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ৮০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত ৯ মার্চ কমিশন ১০টি মামলার অনুমোদন দিয়েছে। এর মধ্য থেকে আগামী রোববার পাঁচটি মামলা করা হবে। পর্যায়ক্রমে বাকি পাঁচটি মামলা করা হবে। প্রতিটি মামলায় পি কে হালদারকে আসামি করা হবে।

দুদক সূত্র জানায়, আসামিদের বিরুদ্ধে লিপারো ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের নামে ১৭৪ কোটি টাকা, আরবি এন্টারপ্রাইজের নামে ৫৫ কোটি, ওকায়ামা লিমিটেডের নামে ৮৭ কোটি ৬০ লাখ, ইমেপোর নামে ৫৮ কোটি এবং কনিকা এন্টারপ্রাইজের নামে ৬০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

অনুমোদন দেওয়া মামলাগুলোতে বলা হয়, ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের সাবেক এমডি মো. রাশেদুল হক, ভারপ্রাপ্ত এমডি মো. আবেদ হোসেনসহ সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান এমএ হাশেম পি কে হালদারের সঙ্গে সহযোগিতা ও প্রতারণার মাধ্যমে কোনো ধরনের জামানত ছাড়াই পাঁচটি কাগুজে প্রতিষ্ঠানের নামে ৪৩৪ কোটি ছয় লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

আসামিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে লেয়ারিংয়ের মাধ্যমে ভুয়া কোম্পানি ও বিভিন্ন ব্যক্তির হিসাবে ওই অর্থ স্থানান্তর, রূপান্তরের মাধ্যমে মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ও দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারা লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

মন্তব্য করুন