ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের আগরার করোনা আক্রান্ত এক স্বামীর তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হতেই তাকে নিয়ে অটোরিকশায় করে হাসপাতালে রওনা দিয়েছিলেন রেনু সিঙ্ঘল। তবে অটোর মধ্যেই স্বামীর শ্বাসকষ্ট আরও বাড়তে থাকে। নিরুপায় হয়ে স্বামীকে বাঁচানোর প্রাণপণ চেষ্টা শুরু করেন রেণু। 

এ সময় স্বামীর মুখে মুখ দিয়ে কৃত্রিম উপায়ে তাকে শ্বাস দিয়ে বাঁচিয়ে তুলতে চেয়েছিলেন এই নারী। তবে তার সব চেষ্টা ব্যর্থ হয়। সোমবার হাসপাতালের বাইরেরেণুর কোলে মারা যান তার স্বামী রবি সিঙ্ঘল। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অসহায় রেণুর এই মরিয়া প্রচেষ্টা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। খবর এনডিটিভির।

আগরা পুলিশ সূত্র জানায়, উত্তরপ্রদেশের আবাস বিকাশ সেক্টর ৭-এর বাসিন্দা রবি সিঙ্ঘল সম্প্রতি করোনায় আক্রান্ত হন। এপর তার শারীরিক অবস্থা ক্রমশ অবনতি হতে থাকে। সোমবার সকালে তাকে নিয়ে হাসপাতালে রওনা হয়েছিলেন রেণু। অটোতে করে তড়িঘড়ি পৌঁছতে চেয়েছিলেন সরোজিনী নাইডু মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। কিন্তু অটোতে রবির শ্বাসকষ্ট গুরুতর হতে শুরু করে। স্বামীকে মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরিয়ে আনতে অটোর মধ্যেই তাকে কৃত্রিম উপায় বাঁচানোর চেষ্টা শুরু করেন রেণু। 

রেণুর এ ভাইরাল ভিডিও ভারতের রাজধানী দিল্লিসহ দেশটির অসংখ্য হাসপাতালে কোভিড রোগীদের ভয়াবহ দৃশ্য মনে করিয়ে দিচ্ছে। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসায় অক্সিজেনের হাহাকার শুরু হয়েছে হাসপাতালগুলোতে। আইসিইউ তো দূরের কা হাসপাতালেই মিলছে না সিট। 

সোমবার সকালে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটি জুড়ে নতুন করে ৩ লাখ ৫২ হাজার ৯৯১ জন নতুন করোনারোগী শনাক্ত হয়েছে। ওই সময়ের মধ্যে মৃ্ত্যু হয়েছে ২ হাজার ৮১২ জনের।

বিষয় : করোনা পরিস্থিতি ভারত

মন্তব্য করুন