সুনামগঞ্জে মাত্র ৭০০ টাকা মূল্যের ব্যাটারির জন্য গ্রাম পুলিশকে খুন করেছে চোরেরা। খুনের ঘটনায় আটক দুই ব্যক্তি এই স্বীকারোক্তি দিয়েছেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব। সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের হলহলিয়া গ্রামের চরগাঁও এলাকা থেকে তাদের আটক করে র‌্যাব। আটকরা হলেন- ওই গ্রামের মলাই মিয়ার ছেলে আব্দুল হেকিম ও বোরোখাড়া গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের ছেলে এনামুল হক।

শনিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় র‌্যাব-৯’এর সুনামগঞ্জ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এসময় র‌্যাবের সুনামগঞ্জ ক্যাম্পের অধিনায়ক লে. কমান্ডার সিঞ্চন আহমেদ বলেন, আব্দুর রহমান নামে গ্রাম পুলিশ সদস্যের হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে র‌্যাব কাজ করেছে। পরে গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে তাহিরপুরের হলহলিয়া গ্রামের চরগাঁও এলাকা থেকে শুক্রবার রাতে হত্যাকাণ্ডে জড়িত দু'জনকে আটক করা হয়। 

সিঞ্চন আহমেদ বলেন, গত বুধবার গ্রাম পুলিশ আব্দুর রউফের বাড়ি থেকে একটি ব্যাটারি চুরির সময় তিনি চোরদের আটকের চেষ্টা করেন। এসময় আব্দুল হেকিম ধারালো চাকু দিয়ে আব্দুর রউফের বুকে আঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলেই আব্দুর রউফের মৃত্যু হয়।

তিনি জানান, আটক ২ জনকে তাহিরপুর থানায় হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে, একই ঘটনায় তাহিরপুর থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে মো ইয়াছিন মিয়া (২০) নামের একজনকে আটক করেছে। তার বাড়ি উপজেলার মাটিকাটা গ্রামে। শনিবার ইয়াছিন সুনামগঞ্জ বিচারালয়ের তাহিরপুর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তরফদার।

বিষয় : পুলিশ খুন গ্রাম পুলিশ খুন ছুরিকাঘাতে খুন

মন্তব্য করুন