সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রাষ্ট্রবিরোধী বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মুফতি নুর হোসাইন নুরানীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। গত ৯ মে কাজী আল জাহিদ নামের এক ব্যক্তি বাদী হয়ে নুর হোসাইনের বিরুদ্ধে পল্টন থানায় এ মামলা করেন। এর আগে সংগঠনটির শীর্ষ পর্যায়ের অনেকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ঘটনায় মামলা হয়েছে।

এজাহারে বলা হয়েছে, গত ৭ মে বাদী জাহিদ তার মোবাইল ফোনে একটি ইউটিউট চ্যানেলে ভিডিও দেখেন। প্রধানমন্ত্রীকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে নানা ধরনের বক্তব্য দেন মুফতি নুর হোসাইন। এ ছাড়া একটি ওয়াজ মাহফিলের ভিডিওতে দেখা যায়- নুর হেফাজতের শীর্ষ নেতা বাবুনগরীকে বাংলাদেশের রুহানি রাষ্ট্রপতি বলে দাবি করে বক্তব্য দেন। 

তিনি বলেন, বাবুনগরীরের আঙুল হেলানিতে দেশ চলবে। ন্যাশনাল ফতোয়া বোর্ড গঠন করা হবে। এই বোর্ড যা রায় দেবে, তাই কার্যকর করা হবে। পৃথক একটি ভিডিওতে শ্রোতাদের উদ্দেশে বলেন, 'আগামী দিনের জন্য প্রস্তুত হও। ওয়ার্ড কমিশনার, মেয়র, এমপি, মন্ত্রী, সচিব, পুলিশ অফিসার হবে আল্লাহওয়ালারা। তবেই হবে বাংলাদেশের আসল স্বাধীনতা।'

ঢাকা মহানগর পুলিশের মতিঝিল বিভাগের উপকমিশনার এনামুল হক মিঠু সমকালকে বলেন, নুর হোসাইন এরই মধ্যে মুন্সীগঞ্জে একটি মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন। পল্টন থানার মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তর করা হবে।