বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রতিষ্ঠানভিত্তিক কার্যক্রম বাড়াতে হবে। ২০৪১ সালের বাংলাদেশে এমন দক্ষ কর্মীবাহিনী প্রয়োজন, যাদের দলগত হবে কার্যক্রম সুসংগঠিত ও সুপরিকল্পিত।

শনিবার বাংলাদেশ পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিপিএমআই) কর্তৃক আয়োজিত 'লীডারশীপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম ফর পাওয়ার সেক্টর অর্গেনাইজেসন্স' শীর্ষক ১২ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। 

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল প্রযুক্তির সাথে সমন্বয় করে আধুনিক প্রযুক্তিবান্ধব বিদ্যুৎ খাত গঠিত হচ্ছে। এ খাতে নেতৃত্ব দিতে হলে নিজেদেরকেও আধুনিক করে গড়ে তুলতে হবে, দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ার সক্ষমতা থাকতে হবে। সেজন্য নিয়মিত প্রশিক্ষণের ভেতর থাকা বাঞ্চনীয়। এসময় তিনি সকল কর্মকর্তাকে গ্রাহক বান্ধব হয়ে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করে গ্রাহকের প্রত্যাশা অনুযায়ী বিদ্যুৎ সেবা প্রদানে আন্তরিক হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।

কোভিড-১৯ পেনডেমিক পরিস্থিতি মোকাবেলা করে প্রতিটি প্রতিষ্ঠানকে সামনে এগিয়ে নেয়ার জন্য নেতৃত্বের উন্নয়ন ও বিকাশে বিদ্যুৎ বিভাগের সরাসরি তত্ত্বাবধানে বিপিএমআই নিয়মিত যে  প্রশিক্ষণ কর্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে, তার আওতায় 'লিডারশিপ ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম ফর পাওয়ার সেক্টর অর্গেনাইজেসন্স' প্রশিক্ষণটি পরিচালিত হচ্ছে। বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড এবং পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির উপ-পরিচালক, নির্বাহী প্রকৌশলী ও ডিজিএম পর্যায়ের মোট  ৫০জন কর্মকর্তা নিয়ে ১২ দিনব্যাপী (সপ্তাহে ৩ দিন) ১০ম ব্যাচের প্রশিক্ষণ কোর্সটি অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

ভার্চুয়াল এই সমাপনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট ইনস্টিটিউট (বিপিএমআই) এর রেক্টর মো. মাহবুব-উল-আলমের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মাঝে বিদ্যুৎ সচিব মো. হাবিবুর রহমান ও পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মঈন উদ্দিন (অবসরপ্রাপ্ত) সংযুক্ত থেকে বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য করুন