রাজধানীর আগারগাঁওয়ে ঢাকা বিভাগীয় পাসপোর্ট অফিসের সামনে থেকে দালাল চক্রের ১৩ সদস্যকে আটক করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দিয়েছেন র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত র‌্যাব-২ এর একটি দল এ অভিযান চালায়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিছুর রহমান।

দণ্ড পাওয়া ১৩ দালাল হলেন- তুহিন শেখ (৫৫), মো. সোহাগ (৩৫), মেহেদী হাসান হান্নান (৩৮), মো. নুরুজ্জামান (৪০), মো. সেলিম (৪০), ইমদাদ হোসেন (৩২), মো. সুমন (২০), আবুল খায়ের (৩৮), জসিম উদ্দিন (৩৪), সুমন কাজী (৪০), দারোগা আলী (৪৫), খোরশেদ আলী (৩০) ও সোহেল রানা (৩৯)। তাদের মধ্যে ৬ জনকে একমাস করে কারাদণ্ড ও সাতজনকে ১০ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

র‌্যাব-২ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. ফজলুল হক জানান, আগারগাঁও পাসপোর্ট অফিস এলাকায় সংঘবদ্ধ ওই দালাল চক্র অল্প সময়ে পাসপোর্ট করে দেওয়ার প্রলোভন দেখানোসহ বিভিন্ন কৌশলে ভুক্তভোগীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। এমনকি পাসপোর্ট ফি জমা দেওয়ার কথা বলে টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়া, ভুয়া সিল, সত্যায়ন, জাল ব্যাংক ভাউচার দেওয়া, ভুয়া চিঠিপত্র তৈরি করা, ভুয়া পাসপোর্ট দিয়ে পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের হয়রানি করে আসছিল।

তিনি বলেন, অভিযানের সময় এসব অভিযোগের সত্যতাও মেলে। ঘটনাস্থল থেকে ওই ১৩ জনকে আটক করা হলে তারা অপরাধের কথা স্বীকার করে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ১৩ জনকে কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ড দেন।