ভারতে তরুণী পাচার ও যৌন নির্যাতনের মামলায় আমিরুল ইসলাম নামের এক আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। অপর এক আসামি আবদুস সালাম মোল্লাকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে সোমবার এ দু'জনকে আদালতে হাজির করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা হাতিরঝিল থানার পরিদর্শক মহিউদ্দিন ফারুক। আমিরুল স্বেচ্ছায় ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করা হয় এবং আবদুস সালামকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। ঢাকা মহানগর হাকিম ইয়াসমিন আরা আসামি আমিরুল ইসলামের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন এবং আবদুস সালামকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

ভারতে পাচার হওয়ার ৭৭ দিন পর বন্দিদশা থেকে পালিয়ে দেশে ফিরে হাতিরঝিল থানায় গত ১ জুন মানব পাচার ও পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেছিলেন ওই তরুণী। মামলায় ১২ জনকে আসামি করা হয়েছে। এরই মধ্যে কয়েকজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা কারাগারে আছে।





বিষয় : আদালত

মন্তব্য করুন