ফোনালাপে আড়িপাতা প্রতিরোধে নেওয়া সরকারের পদক্ষেপ জানতে চেয়ে লিগ্যাল নোটিস পাঠিয়েছেন ১০ আইনজীবী।

নোটিস প্রাপ্তির ৭ দিনের মধ্যে জবাব না দেওয়া হলে হাইকোর্টে রিট করার কথাও বলা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের ১০ জন আইনজীবীর পক্ষে মোহাম্মদ শিশির মনির মঙ্গলবার ডাক-টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) বরাবর এই নোটিসটি পাঠান।

এতে ২০১৩ সাল থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত সংঘটিত ১৬টি আড়িপাতার ঘটনা উল্লেখ করা হয়।

নোটিসে বলা হয়, ‘বাংলাদেশের সংবিধানের ৪৩ অনুচ্ছেদে চিঠিপত্র ও যোগাযোগের অন্যান্য উপায়ের গোপনীয়তা সংরক্ষণ নাগরিকের মৌলিক অধিকার হিসেবে স্বীকৃত। কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনা অহরহ ঘটছে।’

বিষয় : ফোনালাপে আড়িপাতা সুপ্রিম কোর্ট বিআরটিসি

মন্তব্য করুন