হংসলতার সঙ্গে প্রথম দেখা বলধা গার্ডেনের সাইকিতে। ইংরেজি নাম 'পাইপ ভাইন'। কোথাও কোথাও 'ডাচ্‌ম্যান পাইপ' নামেও পরিচিত। ফুলগুলো অদ্ভুত ভঙ্গিতে ঝুলে থাকে। বর্ণ ও গড়নের দিক থেকে আলাদা হওয়ায় ফুলটি সহজেই নজর কাড়ে। শতবর্ষী এই ফুলগাছ বলধা গার্ডেনের উদ্ভিদ ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতা অক্ষুণ্ণ রেখেছে। 

পাতা ও ফুলের সৌন্দর্য মিলিয়ে গাছটি অনন্য। গোলাকার এই ফুলের মুখ ক্রমেই সরু, কোনো খোলা পাপড়ি নেই, সারা গা দাগ-ফুটকিতে ভরা। বেশি ফুল ফোটে বর্ষায়। প্রতিবছর বৃক্ষমেলায় এদের আরও রকমফের চোখে পড়ে। ব্রিটিশ ভারতের অরণ্যতরু সন্ধানী জে.ডি. হুকার 'দ্য হিমালয়ান জার্নাল' গ্রন্থে গাছটির উল্লেখ করেছেন। 

হুকার তিব্বত সীমান্তে তিস্তার উজানে খুঁজে পেয়েছিলেন হংসলতার ঝাড়। তিনি লিখেছেন- 'পথ গেছে তিস্তা পর্যন্ত। জায়গাটা খুবই গরম। পিঁপড়ে ও মশার অসহ্য উৎপাত। এখানে পেলাম একটি হংসলতা (Aristolochia saccata), উঁচু গাছের মাথা পর্যন্ত উঠে গেছে, কলসির গড়নের ফুল।'

বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় তার অনন্য সৃষ্টি 'আরণ্যক' গ্রন্থে অন্তত তিনবার হংসলতার কথা বলেছেন, উদ্ভিদ সাহিত্যে যা অলঙ্কার হিসেবেই সমুজ্জল। উদ্ধৃতিগুলো-

'যুগল প্রসাদ দেখিলাম এ দেশের বহু ফুল ও সুদৃশ্য বৃক্ষলতার খবর রাখে। বলিলাম, তুমি অ্যারিস্টোলোকিয়া লতা চেন?' (পৃ. ৬৫)

'সে বলিল, সরস্বতী কুণ্ডীর পূর্ব পাড়ের জঙ্গলে যতগুলো হংসলতা লাগিয়েছিলেন, সবগুলো কেমন ঝাঁপালো হয়ে উঠেছে দেখেছেন বাবুজী?' (পৃ. ১২৮)।

'যুগল প্রসাদ মরিয়া যাইবে। কিন্তু সরস্বতী হ্রদের জলে আজ হইতে শতবর্ষ পরেও হেমন্তে ফুটন্ত স্পাইডার-লিলি বাতাসে সুগন্ধ ছড়াইবে, কিংবা কোনো-না-কোনো বন ঝোপে বন্য হংসলতার হংসাকৃতি নীল ফুল দুলিবে, যুগল প্রসাদই যে সেগুলো নারা-বইছারের জঙ্গলে আমদানি করিয়াছিলেন একদিন- এ কথা নাইবা কেহ বলিল।' (পৃ. ১৪০)

হংসলতা (Aristolochia  littoralis) চিরসবুজ লতা, ৩ থেকে ৫ মিটার পর্যন্ত দীর্ঘ হতে পারে। পাতা পানের মতো বা কিছুটা লম্বাটে। ফুলের গড়ন হৃৎপিণ্ড বা হাঁসের মতো, গোড়ার দিকটা লম্বা ও বাঁকা। মুখের অভ্যন্তরীণ পিঠ সম্পূর্ণ বেগুনি-বাদামি এবং অসংখ্য দাগ-ফুটকিযুক্ত। 

প্রজাতি অনুসারে ফুলের আকার ও রঙের তারতম্য লক্ষণীয়। কোনো কোনোটি ভারি সুন্দর। গন্ধ অপ্রীতিকর। ফুলগুলো ৮ থেকে ১০ সেন্টিমিটার লম্বা হয়। মাছির মাধ্যমে এই ফুল পরাগায়িত হয়। বীজগুলো হালকা। বাতাসে ভেসে অনেক দূর অবধি ছড়িয়ে পড়তে পারে। আদি আবাস দক্ষিণ আমেরিকা।