করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে দেশে জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন দেওয়া হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি মডার্নার টিকা। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর এ অনুমোদন দিয়েছে।

মঙ্গলবার ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মডার্নার টিকা অনুমোদন দিতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে ঔষধ প্রশাসন অধিদফতরে আবেদন করা হয়। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ২৭ জুন টিকাটির অনুমোদন দেওয়া হয়। 

এতে আরও বলা হয়েছে, মডার্নার টিকা ১৮ বছর বা এর বেশি বয়সীদের দেওয়া যায়। প্রত্যেককে এই টিকার দুই ডোজ করে দিতে হয়। টিকাটির প্রথম ডোজ নেওয়ার ৪ সপ্তাহ পর দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া যাবে। মাইনাস ১৫ থেকে মাইনাস ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এ টিকা সংরক্ষণ করতে হয়। টিকাটি ব্যবহারের আগে ২-৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ৩০ দিন এবং ৮-২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ১২ ঘণ্টা পর্যন্ত সংরক্ষণ করা যাবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, মর্ডানার টিকা করোনার বিরুদ্ধে ৯৪ দশমিক ১ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর। বাংলাদেশে এই টিকার স্থানীয় প্রতিনিধি এমএনসি অ্যান্ড এএইচ, স্বাস্থ্য অধিদফতর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

এদিকে বাংলাদেশের জন্য মডার্নার তৈরি ২৫ লাখ টিকা চলতি সপ্তাহে পাঠাতে শুরু করছে যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপি হোয়াইট হাউসের একজন কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ কথা জানিয়েছে।

 এর আগে গত ২৬ জুন এক টুইট বার্তায় ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরা‌ষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার জানিয়েছিলেন, কোভ্যাক্সের আওতায় বাংলাদেশকে শিগগিরই ২৫ লাখ ডোজ মডার্নার টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র।