সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় জুলাই মাসে সরকারি প্রতিষ্ঠানে গরিব মানুষের কভিড-১৯ নমুনা পরীক্ষা বিনামূল্যে করা হবে। এরপর আগস্ট  থেকে আবার নির্ধারিত মূল্যে করোনা পরীক্ষা করাতে হবে।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে একটি চিঠি দিয়ে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়, সারাদেশের করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় কোভিডের নমুনা পরীক্ষার প্রয়োজনীয় দেখা দিয়েছে। পরীক্ষার ফি দিয়ে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর একই পরিবারের একাধিক সদস্যের করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ পরীক্ষা কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে। এমতাবস্থায় কভিড-১৯ প্রতিরোধ ও মোকাবিলায় দেশের দরিদ্র জনগণের কভিড-১৯ শনাক্তকরণ পরীক্ষা শুধু জুলাই মাসের জন্য বিনামূল্যে করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট সকল সরকারি প্রতিষ্ঠানকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদানের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।'

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সূত্র জানায়, বিনামূল্যে নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্তটাও আরও ১৫ দিন আগের ছিল। তখন এটা সীমান্তবর্তী জেলাগুলোর জন্য করা হয়েছিল। সংক্রমণ সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ায় এখন প্রধানমন্ত্রী দেশব্যাপী বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন।  এক্ষেত্রে নমুনা পরীক্ষা করাতে গেলে একটা ফর্ম দেওয়া হবে। সেখানে কেউ যদি লেখেন, ১০০ টাকা দিতে অপারগ, তাহলে তার পরীক্ষা বিনামূল্যে করে দেওয়া হবে।

কভিড-১৯ শনাক্তে দেশে সরকারি হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষার ফি ১০০ টাকা এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে অন্তত ৩ হাজার টাকা খরচ হয়।