ঠাকুরগাঁওয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাংবাদিক তানভীর হাসান তানুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই সাংবাদিক মামলার খোঁজখবর নিতে থানায় গেলে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলাম এ তথ্য জানিয়েছেন।

ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. নাদিরুল আজিজ বাদী হয়ে তানুসহ তিন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। তানু ছাড়া অন্য দুই আসামি হলেন সাংবাদিক রহিম শুভ ও আব্দুল লতিফ লিটু।

তানভীর হাসান তানু জাগো নিউজ ছাড়াও ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন ও ইত্তেফাকের জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত।

গত ৬ ও ৭ জুলাই ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের খাবার নিয়ে জাগো নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, নিউজবাংলা টোয়েন্টিফোর ডটকম এবং বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে সংবাদ প্রকাশ হয়েছিল।

সাংবাদিক তানুকে গ্রেপ্তারের খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তার মুক্তির দাবিতে এবং মিথ্যা মামলার প্রত্যাহার চেয়ে জেলা প্রেসক্লাব চত্বরে বিক্ষোভ করেন সাংবাদিকরা। তারা তানুর মুক্তি ও সাংবাদিকদের নামে সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কের মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।

ঠাকুরগাঁও প্রেসক্লাবের সভাপতি মনসুর আলী বলেন, একটি সত্য সংবাদ করার পরেই এভাবে মামলা দিয়ে সাংবাদিকদের হয়রানি করা মানে দেশের কণ্ঠ চেপে ধরা। মামলা প্রত্যাহার করা না হলে আমরা কঠোর আন্দোলনে যাবো।