জাপান থেকে পাওয়া পৌঁছেছে অক্সফোর্ড–অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২ লাখ ৪৫ হাজার ডোজ করোনাভাইরাসের টিকা এসেছে দেশে। 

শনিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টিকাগুলো এসে পৌঁছায়। পরে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত নাওকি ইতো পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের কাছে তা হস্তান্তর করেন।

টিকার বৈশ্বিক জোট কোভ্যাক্সের আওতায় জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তোশিমিত্সু মোতেগি ১৫টি দেশের জন্য ১ কোটি ১০ লাখ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন। ওই তালিকায় থাকা বাংলাদেশকে কয়েক ধাপে ২৯ লাখ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দেবে জাপান। 

শনিবার বিকেলে প্রথম ধাপে দেশে আসল ২ লাখ ৪৫ হাজার ডোজ টিকা।

টিকা হস্তান্তরের পরে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও জাপানের রাষ্ট্রদূত।


পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মোমেন বলেন, ভবিষ্যতে করোনা টিকার আর কোনো সংকট হবে না।

জাপানের রাষ্ট্রদূত বলেন, আগামী ১ মাসের মধ্যে আরও প্রায় ২৮ লাখ টিকা জাপান থেকে বাংলাদেশে আসবে।

এর আগে টিকাগুলো নিয়ে অল নিপ্পন এয়ারওয়েজের বিমান জাপানের নারিতা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে শুক্রবার জাপানের স্থানীয় সময় রাত ১০টায় (বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টা) বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। 

তখন নারিতা বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমেদ। মিশন উপ প্রধান শাহ আসিফ রহমান, ফার্স্ট সেক্রেটারি তুষিতা চাকমা।