দেশে প্রতি মাসে এক কোটি লোককে করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। 

রোববার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) কনভেনশন সেন্টারে নির্মাণাধীন ফিল্ড হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে একথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আমাদের ৮ কোটি ভ্যাকসিন রাখার সক্ষমতা আছে। আগামী দিনে প্রতি মাসে ১ কোটি লোককে ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনায় কাজ করছি।

জাহিদ মালেক বলেন, যেভাবে রোগী বাড়ছে হাসপাতালের বেড সংকট দেখা দিতে পারে। ইতোমধ্যে ৮০ শতাংশ বেড রোগীতে ভর্তি হয়ে গেছে। এই ফিল্ড হাসপাতালের কার্যক্রম আগামী সাতদিনের মধ্যে চালু করতে পারবে। ভিসি সাহেবের সঙ্গে কথা বলেছি, আশা করছি আগামী শনিবার থেকে আমরা রোগী ভর্তি করতে পারবো।

ভ্যাকসিনের ব্যবস্থাপনা নিয়ে আজই স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা যাচাই করেছি আগামী দিনগুলোতে কোন দেশ থেকে কত ভ্যাকসিন পাবো। সব মিলিয়ে আমাদের হিসাবে ২১ কোটির মতো ভ্যাকসিনের ব্যবস্থা করা আছে। এই ২১ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়ার ব্যবস্থা, রাখার ব্যবস্থা এবং জনবলের যে ব্যবস্থা সেই পরিকল্পনা আমরা করেছি।

দেশে সব মিলিয়ে ৮ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন সংরক্ষণের সক্ষমতা রয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তাপমাত্রা সেনসিটিভ ভ্যাকসিনও প্রায় ৩০ লাখ সংরক্ষণের ব্যবস্থা আছে। আরও কিছু ফ্রিজের অর্ডার করা হয়েছে। সেগুলো আসলে এই তাপমাত্রা সেনসিটিভ ভ্যাকসিন সংরক্ষণের ব্যবস্থাও সব মিলিয়ে কোটির কাছে চলে যাবে। আমাদের প্ল্যান হচ্ছে প্রত্যেক মাসে ১ কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া।

এসময় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা এ বি এম খুরশিদ আলম, বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শরফুদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।