৫ আগস্টের পরও কঠোর লকডাউন বহালের সুপারিশ করেছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। দেশে করোনা ভাইরাসে মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়তে থাকায় চলমান লকডাউন আরও ১০ দিন বাড়ানোর সুপারিশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

শুক্রবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা এ বি এম খুরশীদ বলেন, যেভাবে সংক্রমণ বাড়ছে, আমরা কিভাবে এই সংক্রমণ সামাল দেব? রোগীদের জায়গা দেব কোথায়? 

তিনি বলেন, সংক্রমণ এভাবে বাড়তে থাকলে পরিস্থিতি সামাল দেওয়া সম্ভব নয়। অবস্থা খুবই খারাপ হতে পারে। এ পরিস্থিতি বিবেচনা করে বিধিনিষেধ বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে। 

খুরশীদ আলম জানান, আরও ১০ দিন আগেই কেবিনেট মিটিংয়ে বিধিনিষেধ বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত আসেনি। 

প্রসঙ্গত, করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সবর্শেষ ২৮ জুন লকডাউন শুরু হয়। ৫ জুলাই পর্যন্ত সপ্তাহব্যাপী লকডাউন চলে। এরপর ৭ জুলাই মধ্যরাত থেকে ১৪ জুলাই রাত ১২টা পর্যন্ত লকডাউনের বিধিনিষেধের সময়সীমা বাড়ানো হয়। এরপর ঈদুল আজহার কথা বিবেচনা করে কঠোর বিধিনিষেধ এক সপ্তাহের জন্য শিথিল করা হয়। এরপর তৃতীয় ধাপে ২৩ জুলাই সকাল ৬টা থেকে ফের শুরু হয় লকডাউন। ৫ আগস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত এ লকডাউন চলবে।