স্বামী রাজ কুন্দ্রার পর্নোগ্রাফি মামলার ঘটনায় আবারো আলোচনায় বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠি। রিয়েলিটি শো থেকে শুরু করে প্রেম, বিয়ে প্রায়ই খবরের শিরোনাম হয়েছেন তিনি।

১৯ জুলাই এ মামলায় গ্রেপ্তার হন তার স্বামী রাজ কুন্দ্রা। এখনো এ ইস্যুতে প্রতিদিনই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন শিল্পা শেঠি।

আর এই মামলায় অকারণে শিল্পার নাম জড়িয়ে অভিনেত্রীর ইমেজ নষ্টের চেষ্টা করছে বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম এই অভিযোগে সংশ্লিষ্ট সংবাদ মাধ্যম ও সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ, যেমন ফেসবুক, ইনস্টাগ্রামের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করলেন শিল্পা।

বৃহস্পতিবার বার অ্যান্ড বেঞ্চের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, শিল্পা মুম্বাই হাইকোর্টে দাখিল আবেদনপত্রে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা, অসত্য এবং অবমাননাকর তথ্য প্রকাশ বা প্রচার বন্ধের আবেদন জানিয়েছেন। পর্নোগ্রাফি সংক্রান্ত নানান খবর পরিবেশনের সময় বেশ কিছু মিডিয়া হাউস অভিনেত্রীর ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে বলে জানান তিনি। অবিলম্বে সোশ্যাল প্ল্যাটফর্ম এবং নিজস্ব সাইট থেকে সেই সকল কনটেন্ট মুছে ফেলার এবং নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছেন এ অভিনেত্রী। এর পাশাপাশি ক্ষতিপূরণ হিসাবে ২৫ কোটি রুপির মোটা অঙ্কও দাবি করেছেন তিনি।

এ বছর ফেব্রুয়ারিতে রাজের বিরুদ্ধে অশ্লীল ব্যবসা করার অভিযোগ করা হয়েছিল। তারপর থেকে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ রাজের বিরুদ্ধে তথ্যপ্রমাণ সংগ্রহে উঠেপড়ে লেগেছিল।

পাঁচ মাস ধরে তারা প্রমাণ সংগ্রহের কাজে ব্যস্ত ছিল। ক্রাইম ব্রাঞ্চের হাতে রাজের এই অন্ধকারময় ব্যবসার অনেক তথ্যপ্রমাণ এসে গিয়েছিল। তাই তারা রীতিমতো আটঘাট বেঁধে ময়দানে নেমেছিল। ১৯ জুলাই রাতে রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করে ক্রাইম ব্রাঞ্চ। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া