সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা থাকায় সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। তবে ১০ আগস্ট পর্যন্ত চলমান লকডাউনের মধ্যে ভোটগ্রহণ করা যাবে না।

বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের একক ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এই আদেশ দেন। আদালত বলেন, ৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে নির্বাচন কমিশন তাদের সুবিধাজনক দিনে ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করতে পারবেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী  মোহাম্মদ শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিপুল বাগমার।

২৬ জুলাই চলমান লকডাউনের মধ্যে সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচনের ভোটগ্রহণ ৫ আগস্ট পর্যন্ত স্থগিত করেছিলেন হাইকোর্ট। করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে চলমান লকডাউনের মধ্যে ২৮ জুলাই নির্ধারণ করা উপ-নির্বাচন স্থগিত করতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়। ওই আসনের ৭ জন ভোটার ও সুপ্রিম কোর্টের ৫ জন আইনজীবী এ রিট দায়ের করেন। এর আগে ২৫ জুলাই চলমান লকডাউনের মধ্যে সিলেট-৩ আসনের উপ-নির্বাচন স্থগিত করতে লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। 

গত ১১ মার্চ সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট-৩ আসন শূন্য হয়। ১৫ মার্চ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ওই আসন ১১ মার্চথেকে শূন্য ঘোষণা করা হয়।