বাংলাদেশের সাংবাদিকদের জন্য ফেসবুকের সঙ্গে যৌথভাবে একটি প্রশিক্ষণ কর্মসূচির আয়োজন করছে সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশ (সিসিএবি) । 'ফেসবুক ফান্ডামেন্টালস্‌ ফর নিউজ' শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মসূচিতে অংশীদার হিসেবে রয়েছে কলম্বোভিত্তিক 'সেন্টার ফর ইনভেস্টিগেটিভ রিপোর্টিং' (সিআইআর)। 

প্রশিক্ষণটি করানো হবে মোবাইল প্ল্যাটফর্মে 'বিগস্প্রিং' অ্যাপের মাধ্যমে। এর লক্ষ্য ২০২১ সালের শেষ নাগাদ অন্তত ১০০০ সাংবাদিককে প্রশিক্ষণ দেওয়া। বৃহস্পতিবার জুমের মাধ্যমে এ কার্যক্রামের উদ্বোধন করা হয়েছে।

ভার্চুয়ালি আয়োজিত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- ডেমোক্রেসি অ্যান্ড গভর্ন্যান্স ইউনিটের (ইউএসএআইডি বাংলাদেশ) ডিরেক্টর রেনডেল ওলসন, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান বুলবুল, ঢাকা ট্রিবিউনে সম্পাদক জাফর সোবহান; ইউনিভার্সিটির অব লিবারেল আটর্সের মিডিয়া স্টাডিজ অ্যান্ড জার্নালিজম অধ্যাপাক জুড জেনিলো। প্রোজেক্ট সম্পর্কে তথ্য দেন- ফেসবুক এশিয়া প্যাসিফিকের নিউজ পার্টনারশিপ পরিচালক অঞ্জলি কাপুর। 

বিগস্প্রিং ও সেন্টার ফর ইনভেস্টিগেটিভ রিপোর্টিংয়ের সিনিয়র নির্বাহী কর্মকর্তারাও তাদের বক্তব্য দেন। আর সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশের পক্ষে স্বাগত বক্তব্য দেন- নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ জেইন আল মাহমুদ।

মোবাইলভিত্তিক এ প্রশিক্ষণ ইংরেজি ও বাংলা উভয় ভাষায় দেওয়া হবে। অনলাইন নিরাপত্তা, ফেসবুকে স্টোরিটেলিং এবং সংবাদ সংগ্রহের বিষয়ে ধারণা দেওয়াই এর লক্ষ্য। ওয়েব ও মোবাইল দুই মাধ্যমেই প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া যাবে।

ফেসবুক এশিয়া প্যাসিফিকের নিউজ পার্টনারশিপ পরিচালক অঞ্জলি কাপুর বলেন, 'বিশ্বব্যাপী মানসম্মত সাংবাদিকতা এবং সাংবাদিকদের সরঞ্জাম (টুলস) ও প্রশিক্ষণ দেওয়ার বিষয়ে আমরা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।'

সেন্টার ফর কমিউনিকেশন অ্যাকশন বাংলাদেশের (সিসিএবি) নির্বাহী পরিচালক জেইন মাহমুদ বলেন, 'আমাদের সাংবাদিকদের সামাজিক যোগাযোগ দক্ষতা উন্নত করতে এ ধরনের উদ্যোগে ফেসবুকের সমর্থনকে স্বাগত জানাই আমরা। যা সারাদেশে রিপোর্টিংয়ের ভীত শক্তিশালী করতে সাহায্য করতে পারে। মোবাইল প্ল্যাটফর্ম বিগস্প্রিং-এর মাধ্যমে আমরা প্রোগ্রামটি আরও দ্রুত সারাদেশে সাংবাদিকদের কাছে পৌঁছাতে পারব। এই কাজের শুরু হলো আজ থেকে।'

সেন্টার ফর ইনভেস্টিগেটিভ রিপোর্টিংয়ের (সিআইআর) নির্বাহী পরিচালক দিলরুকশি হান্দুনেত্তি বলেন, 'এই উদ্যোগটি আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের সাংবাদিকদের জন্য কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছে। এটি সাংবাদিকদের আরও গভীরভাবে কাজ করা এবং স্থানীয় ব্রেকিং নিউজ প্রকাশে সহায়তা করে স্থানীয়দের আরও শক্তিশালী করেছে।'

বিগস্প্রিং-এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী ভক্তি বিথালানি বলেন, 'আমরা এমন একটি মোবাইল প্ল্যাটফর্ম করেছি যা বাংলাদেশে সাংবাদিকদের ডিজিটাল দক্ষতা আরও বাড়াবে। পাশাপাশি এর ব্যবহারও সহজ। আমরা এই প্রচেষ্টার অংশীদার হতে পেরে গর্বিত।'

অ্যাপেল ও অ্যান্ড্রয়েড দুই ধরনের ফোনের মাধ্যমেই সাংবাদিকরা এই প্রশিক্ষণের রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।