অভিনয়-মডেলিংয়ের আড়ালে অনৈতিক কাজ করলে দায় এড়ানো যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাছান মাহমুদ। 

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীতে সরকারি বাসভবনে বঙ্গবন্ধুর শহীদ জ্যেষ্ঠ পুত্র শেখ কামালের ৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে বক্তব্য দান শেষে হাছান মাহমুদ সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন। 

সম্প্রতি একাধিক অভিনয়শিল্পী-মডেল গ্রেপ্তার হওয়া নিয়ে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অভিনয়-মডেলিং এগুলো আমাদের শিল্প-সংস্কৃতিরই অংশ। যারা এগুলো চর্চা করেন তারা এই অঙ্গনকে সমৃদ্ধ করে ও অনেকে জীবিকাও নির্বাহ করে। কিন্তু এর আড়ালে কেউ যদি অবৈধ-অনৈতিক কর্মকান্ডের সাথে যুক্ত থাকে, তিনি যেই হন, সেই দায় তো তাকে নিতেই হবে।’ 

এ ধরনের অভিযোগে গ্রেপ্তারের প্রেক্ষিতে শিল্পাঙ্গণে কোনো বিরূপ প্রভাব পড়বে না উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘অনৈতিক বা অবৈধ কর্মকাণ্ডের সাথে যুক্ত যে কারো বিষয়ে সবসময়ই আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ব্যবস্থা নিতে পারে। এতে পুরো অঙ্গনের ওপর কোনো প্রভাব পড়বে বলে আমি মনে করি না।’

গত বুধবার র‌্যাবের মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হয়েছেন চলতি সময়ের আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমণি। র‌্যাব তার বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেছে। বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা মহানগর মুখ্য হাকিম আদালত এই মামলায় পরীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

গত ১ আগস্ট র‌্যাবের মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার হন মডেল ফারিয়া মাহাবুব পিয়াসা ও মরিয়ম আক্তার মৌ।  তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।  

র‌্যাবের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পরীমণি ও পিয়াসা-মৌ নিজেদের বাড়িতে মাদকের আসর বসাতেন নিয়মিত। তাদের মাদকের আসরে নিয়মিত অর্থ যোগাতেন সমাজের উচ্চবিত্ত ও ব্যবসায়ী সমাজের একাংশ। এখন ওই ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধেও অভিযান পরিচালনা করবে র‌্যাব। 

পরীমণি গ্রেপ্তার ইস্যুর মধ্যেই বুধবার রাতে গণমাধ্যমে খবর আসে, চিত্রনায়িকা আঁচল, শিরিন শিলা, নাটকের অভিনেত্রী পারসা ইভানাসহ একাধিক চিত্রনায়িকা ও মডেল এখন র‌্যাবের নজরদারিতে রয়েছেন। 

এ ঘটনায় বিনোদন জগতে আতঙ্ক দেখা দিলে তথ্যমন্ত্রী সরকারের অবস্থান ব্যক্ত করেন।

এদিন শহীদ শেখ কামালের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে মন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, '১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর সাথে শহীদ হওয়া পরিবারের সদস্য শেখ কামাল ছিলেন একাধারে ক্রীড়াবিদ ও অন্যদিকে সংস্কৃতিকর্মী। তিনি ফুটবল খেলতেন, ক্রিকেট খেলতেন। আবাহনী ক্রীড়াচক্র সংগঠিত করে বাংলাদেশে আধুনিক ফুটবলের প্রবর্তন করেছিলেন তিনি। একইসাথে তিনি অভিনয় করতেন, সেতার বাজাতেন, গান গাইতেন। এমন বহুগুণে গুণান্বিত ছিলেন শহীদ শেখ কামাল। 

ড. হাছান বলেন, 'শেখ কামালকে হত্যা করার মধ্য দিয়ে ক্রীড়াঙ্গণ-সাংস্কৃতিক অঙ্গনসহ দেশের অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। অহমিকাহীন এ মানুষটিকে দেখে কেউ বলতে পারতো না তিনি জাতির পিতার পুত্র কিম দেশের প্রধানমন্ত্রী কিংবা রাষ্ট্রপতির পুত্র। নির্লোভ, নিরহঙ্কার এমন মানুষকে হত্যাকারী খুনী চক্রের প্রতি আমি ধিক্কার জানাই।'