অবিলম্বে ব্যাটারিচালিত রিকশা ও ইজিবাইক আটক বন্ধ করা, গরিব মানুষের ঘাম ঝরানো টাকায় কেনা ব্যাটারি ও মোটর ফেরত দেওয়া এবং প্রয়োজনীয় নীতিমালা ও উপযুক্ত নকশা প্রণয়ন করে ব্যাটারিচালিত সব বাহনের লাইসেন্স দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে খুলনায়। রিকশা, ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান ও ইজিবাইক চালক সংগ্রাম পরিষদ খুলনা মহানগর কমিটির উদ্যোগে রোববার সকাল ১০টায় নগরীর শিববাড়ি মোড়ে এ মানববন্ধন হয়।

এতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর কমিটির আহ্বায়ক শ্রমিকনেতা এসএম আলমগীর হোসেন বাবু এবং সঞ্চালনা করেন সদস্য সচিব ও বাসদ নেতা জনার্দন দত্ত নান্টু। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বাম গণতান্ত্রিক জোট খুলনা জেলা সমন্বয়ক ও গণসংহতি আন্দোলন খুলনা জেলা কমিটির প্রধান সমন্বয়কারী মুনীর চৌধুরী সোহেল, টিইউসি খুলনা জেলা সভাপতি এইচএম শাহাদাৎ, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট খুলনা জেলা সভাপতি আব্দুল করিম, সিপিবি খুলনা জেলা সদস্য মিজানুর রহমান বাবু, সংগঠনের খুলনা মহানগর কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক মানিক মিঞা, সদস্য কোহিনুর আক্তার কণা, আব্দুল হাই, মাসুদ রানা, ইলিয়াস আকন, রফিকুল ইসলাম, শহিদুল সিকদার মনির, নাজমুল হোসেন, আজাহারুল ইসলাম, হারুনুর রশীদ, মিঠু মল্লিক, মো. সাইফুল্লাহ, আবু তালেব পলাশ, শেখ শহিদ, মো. রশীদ, মাসুদ রানা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, কয়েক দিন ধরে খুলনা সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিকশা আটক করে ব্যাটারি ও মোটর খুলে রাখছে। করোনা মহামারিকালে চরম ক্ষতিগ্রস্ত চালকরা ঋণ করে দুর্মূল্যের বাজারে নিজেদের আয় বাড়ানোর জন্য রিকশায় মোটর লাগিয়ে চালাচ্ছে। সারাদেশের কোথাও এই রিকশা আটক না করা হলেও খুলনা সিটি করপোরেশন কর্তৃপক্ষ এই অমানবিক কাজ করছে।