রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল চত্বরে গাছ কেটে পাখি হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে কয়েকটি পরিবেশবাদী সংগঠন। সোমবার নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে মানববন্ধনে বক্তারা মৌসুমি পাখি হত্যায় জড়িতদের শাস্তিসহ পাখিদের আবাসস্থল গাছগুলো না কাটার দাবি জানান।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান, নদী ও পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক হোসেন আলী পিয়ারা, এলিজাবল ইয়ুথ ফর ইডুলেশনের সংগঠক গোলাম নবী রনী, দিনের আলো হিজড়া সংঘের সভাপতি মোহনা, গ্রীন ভয়েসের আহ্বায়ক আব্দুর রহিম, ক্ষেতলাল পাখি কলোনি সভাপতি মহাসিনা বেগম প্রমুখ।

শনিবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ড্রেনের জন্য একটি অর্জুন গাছ কাটা হয়। ওই গাছে শামুকখোল পাখির অসংখ্য বাসা ছিল এবং বাসায় শতাধিক পাখির বাচ্চা ছিল। গাছ কাটার কারণে মাটিতে পড়ে ৩০-৪০টি বাচ্চা মারা যায়। বেঁচে যায় অনেকগুলো পাখির বাচ্চা। মানুষ ধরে জবাই করে নিয়ে যায়। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হলে তীব্র সমালোচনা শুরু হয় নগরীতে।