পিরোজপুরের মাল্টিপারপাস কোম্পানি এহসান গ্রুপের কাছে পাওনা টাকা ফিরে পেতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন ভুক্তভোগী গ্রাহক ও প্রতিষ্ঠানে কর্মরত মাঠকর্মীরা। 

শনিবার সকাল ১০টায় শহরের বাইপাস সড়কে এহসান গ্রুপ কার্যালয়ের সামনে এসব কর্মসূচি হয়। এতে বক্তব্য দেন গ্রাহক ও মাঠকর্মী রফিকুল ইসলাম, মো. নাসির উদ্দিন, মো. জাকির হোসেন, মাওলানা হারুন অর রশিদ প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, মাল্টিপারপাস কোম্পানি এহসান গ্রুপের পরিচালক রাগীব আহসান ধর্মীয় অনুভূতিকে কাজে লাগিয়ে গ্রাহকের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান তার স্ত্রী সালমা বেগমকে উপদেষ্টা বানিয়েছেন। তার বাবা আ. রব খানকে সহসভাপতি, শ্বশুর শাহ আলমকে ম্যানেজার, তার বোনজামাই নাজমুল ইসলাম এবং তার ভাইদের রেখেছে গুরুত্বপূর্ণ পদে। গ্রাহকের টাকা দিয়ে পরিবারের সদস্যরা নামে-বেনামে অনেক জমি ক্রয় করেছেন। গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছেন। তারা জমাকৃত টাকা ফেরত চান।

বক্তারা আরও বলেন, এহসান গ্রুপের সব প্রতিষ্ঠান ও সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করা হোক। গ্রাহকের টাকায় কেনা জমি, ১৭টি প্রতিষ্ঠান ও সম্পত্তি জেলা প্রশাসনের দায়িত্বে রাখা হোক। এহসান গ্রুপের ১ হাজার ২০০ মাঠ কর্মকর্তা, ১০ হাজার গ্রাহকের প্রায় ১৭ হাজার কোটি টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হোক।

এ ঘটনায় গা-ঢাকা দেওয়া পিরোজপুরের মাল্টিপারপাস কোম্পানি এহসান গ্রুপের পরিচালক মুফতি মাওলানা রাগীব আহসান ও তার তিন ভাইকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব ও পুলিশ। তারা হলেন- আবুল বাশার, মাহমুদুল হাসান ও মো. খাইরুল ইসলাম।