রাজধানীর কমলাপুর এলাকায় মো. হৃদয় (২২) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার মধ্যরাতে দক্ষিণ কমলাপুরের মাজার রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে মো. ফাহিম নামে আরেক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। এছাড়া নিহত হৃদয় ভবঘুরে ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

আটক ফাহিম পুলিশের কাছে দাবি করেছেন, তিনদিন আগে হৃদয় তার মোবাইল ফোন কেড়ে নিয়েছিলেন। সোমবার রাতে ফাহিম আরও কয়েকজনকে নিয়ে হৃদয়ের কাছ থেকে মোবাইলটি নিতে যান। তখন হৃদয় একটি কাঁচি দিয়ে তার পেটে আঘাত করেন। পরে ‘বাঁচার জন্য’ সেই কাঁচি কেড়ে নিয়ে হৃদয়ের পেটে ঢুকিয় দেন ফাহিম। এতেই মারা যান হৃদয়।

পুলিশের মতিঝিল জোনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার আবুল হাসান জানান, খবর পেয়ে তারা হৃদয়কে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে।

পুলিশের এ কর্মকর্তা বলেন, হৃদয় ও ফাহিদ দুজনেই পূর্ব পরিচিত। তারা মাজার রোড এলাকার ফুটপাতে থাকতেন। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।