জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের পেশ ইমাম মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে বয়স জালিয়াতির অভিযোগটি নিষ্পত্তি করার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃপক্ষকে এই অভিযোগ নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে। এক আবেদনের প্রেক্ষিতে বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ বুধবার এ আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আব্দুল কুদ্দুস বাদল। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুল আলম।

এর আগে ২০১২ সালে বায়তুল মোকাররমের ইমাম হিসেবে নিয়োগ পান মিজানুর রহমান। বর্তমানে সিনিয়র পেশ ইমামের পাশাপাশি ভারপ্রাপ্ত খতিব হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি। 

সরকারের অডিট বিভাগের এক প্রতিবেদনে, মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে বয়স জালিয়াতি করে ইমাম পদে নিয়োগ পাওয়ার তথ্য উঠে আসে। পরে ওই ইমামের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক। রিটের শুনানি শেষে ইমাম মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে করা আবেদন নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।