তিল তিল করে ক্রিকেট ফেরানোর চেষ্টা এভাবে ধাক্কা খাবে! এই দুশ্চিন্তা থেকেই নিউজিল্যান্ডকে মাঠে নামাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছিল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। এই কাজে তারা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকেও নামিয়ে ছিল। সফরকারীদের আশ্বস্ত করতে ইমরান খান ফোনে কথা বলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আর্ডেনের সঙ্গে। তাতেও সিদ্ধান্ত বদল করেননি কিউই প্রধানমন্ত্রী। ল্যাথাম-নিকোলসদের দেশে ফিরিয়েই নেওয়া হচ্ছে।

এত চেষ্টা করেও ব্যর্থ হওয়ার পর হতাশ পিসিবি এক বিবৃতি দিয়ে ইমরান খানের ফোনের বিষয়টি জানায়, 'পিসিবি ও পাকিস্তান সরকার প্রতিটি সফরকারী দলের জন্য প্রশ্নাতীত নিরাপত্তা দিয়ে থাকে। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের জন্যও আমরা সে ব্যবস্থাই রেখেছি। আমাদের প্রধানমন্ত্রী (ইমরান খান) ব্যক্তিগতভাবে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। তাকে বলেছেন, আমাদের বিশ্বের অন্যতম সেরা গোয়েন্দা সংস্থা আছে। সফরকারী দলের ওপর কোনো হুমকি নেই।'

কিন্তু ইমরান খানের এই আশ্বাসেও কাজ হয়নি। নিউজিল্যান্ড সরকার তাদের দলকে ফিরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত অটল থাকে বলেও জানায় পিসিবি, 'নিউজিল্যান্ড দলের নিরাপত্তা কর্মকর্তারাও আমাদের সরকারের নেওয়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায় সন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু একেবারে শেষ মিনিটে এভাবে সফর থেকে নিজেদের গুটিয়ে নেওয়া পাকিস্তান ও বিশ্বের সব ক্রিকেটপ্রেমীর জন্যই হতাশার।'

১৮ বছর পর পাকিস্তান সফরে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড দল। কিন্তু সফরের প্রথম ম্যাচের দিনই নিরাপত্তা শঙ্কায় দেশে ফিরে যাচ্ছে কিউইরা।