ইসরায়েলি কারাগারে প্রায় দুই বছর আটক থাকার পর মুক্তি পেয়েছেন ফিলিস্তিনি রাজনীতিক ও নাগরিক সমাজের নেতা খালিদা জারার। খালিদা ফিলিস্তিনের বামপন্থী রাজনীতির পরিচিত মুখ ও বিলুপ্ত ফিলিস্তিনি লেজিসলেটিভ কাউন্সিলের (পিএলএ) সদস্য। 

স্থানীয় সময় রোববার বিকেলে পশ্চিম তীরের জেনিন শহরের একটি সীমান্তচৌকি দিয়ে ফিলিস্তিনে ফেরেন ৫৮ বছর বয়সী খালিদা। খবর আল-জাজিরার। 

২০১৯ সালের ৩১ অক্টোবর রামাল্লার বাড়ি থেকে খালিদাকে আটক করে ইসরায়েলি বাহিনী। এর মাত্র আট মাস আগে তিনি কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন। ওই সময় বিনা বিচারে তাকে ২০ মাস জেলে রাখা হয়েছিল। তবে ২০১৯ সালে আটকের পর তাঁর বিরুদ্ধে ‘বেআইনি সংগঠন’ পপুলার ফ্রন্ট ফর দ্য লিবারেশন অব প্যালেস্টাইনের (পিএফএলপি) সদস্যপদ থাকার অভিযোগ তোলা হয়। এ অভিযোগে ইসরায়েলের আদালতে বিচার হয় খালিদার।

রামাল্লাভিত্তিক অধিকার সংগঠন আদামির প্রিজনার্স বলেছে, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে খালিদার মতো অনেককেই আটক রেখেছে ইসরায়েল।