ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেছেন, লন্ডনে বসে যদি কেউ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে এবং তার জন্য কোনো অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় তাহলে ব্রিটিশ আইনেই তার বিরুদ্ধে তদন্তের সুযোগ রয়েছে।

বুধবার সকাল ১১টার দিকে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিপলোম্যাটিক কারেসপনডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশের (ডিক্যাব) সঙ্গে আলোচনা অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার।

রবার্ট চ্যাটারটন ডিকসন বলেন, যুক্তরাজ্য সবসময় বাংলাদেশের পাশে ছিল। আগামীতেও থাকবে। সম্প্রতি বাংলাদেশে যেসব অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে তার সঙ্গে যারা জড়িত তারা যদি লন্ডনে অবস্থানরত কারও কাছ থেকে পরামর্শ বা কমান্ড পান তাহলে ব্রিটিশ আইনেই এ বিষয়ে তদন্তের সুযোগ রয়েছে। তবে এটা সম্পূর্ণই ব্রিটিশ আদালতের এখতিয়ার। আদালতের অনুমতি ছাড়া এর তদন্ত করা সম্ভব না।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে তিনি বলেন, বাংলাদেশের রোহিঙ্গা সংকট সমাধানের জন্য ব্রিটিশ সরকার সচেতন রয়েছে। এ ছাড়া জলবায়ু সমস্যা মোকাবিলায়ও বাংলাদেশের পাশে থাকবে যুক্তরাজ্য।

রবার্ট চ্যাটারটন বলেন, আফগানিস্তানে ক্ষমতার রদবদলে নতুন নতুন প্রেক্ষাপট সৃষ্টি হয়েছে। এতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশসমূহে নিরাপত্তা ঝুঁকি বেড়েছে। এসব ঝুঁকি মোকাবিলায় সবাইকে সচেতন থাকার আহ্বান জানান তিনি।