ভর্তি ফি, ক্রেডিট ফি কমানো, কেন্দ্র ফি বাতিলসহ আনুষঙ্গিক সকল ফি কমানোর দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে আবারও উত্তাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বশেমুরবিপ্রবি)। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। তালা লাগিয়েছে প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনে।
 
আন্দেলনরত শিক্ষার্থীরা জানান, পরিবহন, ইন্টারনেট, কাউন্সিলিং, গ্রন্থাগার ব্যবহার না করলেও ফি নিচ্ছে। যা অন্যায়। এসব ফি বাতিল করতে হবে। কেন্দ্র ফি বাতিল করতে হবে। ভর্তি ফি কমাতে হবে। তা না হলে তাদের আন্দোলন চলবে।

এ বিষয়ে ভর্তি ফি ও অন্যান্য ফি এর জন্য গঠিত কমিটির সভাপতি অ্যধাপক ড. মোজাহার আলী বলেন, সেখানে ডিনদের মধ্যে সাবেক রুটিন উপাচার্য ড. শাহজাহান, অর্থ দপ্তরের একজন, কর্মকর্তাদের মধ্যে একজন ডেপুটি রেজিস্ট্রার, শিক্ষক সমিতির সমন্বয়ে কমিটি হয়েছিল। সভাপতি হিসেবে আমার ভূমিকা সামান্য। আমার কাজ কমিটির সবাইকে এক সাথে বসানো।

ভর্তি ফি ও অন্যান্য ফি'র জন্য গঠিত কমিটির সদস্য সচিব নজরুল ইসলাম বলেন, রিজেন্ট বোর্ড ফি নির্ধারণ করে দিয়েছে। আমরা শুধু খাত ভাগ করে দিয়েছি। ফি নির্ধারণ হয়েছে রিজেন্ট বোর্ডে।