ভারতে বসবাসরত বাংলাদেশি লেখিকা তসলিমা নাসরিন দাবি করেন, তাকে এক সপ্তাহ ফেসবুক নিষিদ্ধ করেছিল। তার দাবি, ‘সত্য বলার কারণে ফেসবুক আবারও আমাকে এক সপ্তাহের জন্য নিষিদ্ধ করে রেখেছিল।’ সোমবার নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে এ কথা জানান তিনি। তবে কবে থেকে কবে ফেসবুকে তিনি নিষিদ্ধ ছিলেন তা টুইটে জানাননি।



টুইটারে তসলিমা নাসরিন লিখেছেন, ‘পবিত্র কোরআন অবমাননার অভিযোগে বাংলাদেশে হিন্দুদের বাড়িঘর ও মন্দিরে ভাঙচুর চালানো হয়। পরে জানা যায়, হিন্দুরা নয়, এ কাজ করেছেন ইকবাল হোসেন। এখন জানা যাচ্ছে, এ নিয়ে লেখায় ফেসবুক আমাকে নিষিদ্ধ করে। ইসলামপন্থীরা নিশ্চুপ ছিলেন, তারা ইকবালের বিরুদ্ধে কিছুই বলেননি। এ নিয়ে কথা বলায় ফেসবুক আমাকে নিষিদ্ধ করে।’


তসলিমা নাসরিনকে এর আগেও নিষিদ্ধ করেছিল ফেসবুক। এ বছরের ১৬ মার্চে এ লেখিকা অভিযোগ করেন, ফেসবুক তাকে ২৪ ঘণ্টার জন্য নিষিদ্ধ করেছে। তারও আগে ২০১৫ সালে মার্কিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জায়ান্ট তসলিমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিষ্ক্রিয় করে দেয়।